ঘুমধুমের সাবেক চেয়ারম্যান খাইরুল বশরের মা আর নেই

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, নিজস্ব প্রতিবেদক
আমাদের রামু ডটকম :

নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও পার্বত্য বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর প্রতিনিধি খাইরুল বশরের রত্নাগর্ভা মা ও মরহুম আজিজুল হক মাষ্টারের সহধর্মিনী মহিয়সী নারী আমেনা বেগম পরপারে চলে গেছেন।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্য জনিত রোগে ভোগার পর অবশেষে গত শনিবার বিকাল ৩টা ১০মিনিটের দিকে তুমব্রুস্থ নিজ বাড়িতে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্ল¬াহি…….রাজেউন)। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।

জীবদ্দশায় মরহুমার ৫ পুত্র ও ৩ কন্যা সন্তানের মধ্যে ৪ সন্তান ৩ কন্যা, বড় নাতি বর্তমান ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর আজিজ, সুপ্রিম কোর্টের তরুণ আইনজীবী শিবলী সাদেকিনসহ অসংখ্য নাতি-নাতনী, আত্মীয় স্বজন এবং বহুগুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

রোববার ২৮ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টায় তুমব্রু বাজারস্থ মাঠে মরহুমার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। পরে পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়। জানাজা নামাজে রত্নাপালং ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল কবির চৌধুরী, তুমব্রু সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হামিদুল হক, ঘুমধুম উচ্চবিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি খালেদ সরওয়ার হারেজ, অভিভাবক প্রতিনিধি সাংবাদিক শ.ম.গফুুর, ঘুমধুম শিক্ষা উন্নয়ন পরিষদের আহবায়ক এম ছৈয়দ আলমসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ শরীক হন।

জানাজা নামাজ পুর্ব সময়ে মরহুমার কফিনে শোকশ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন বান্দরবানের বিশিষ্ট বৌদ্ধনেতা বিবি চৌধুরী।