রামুর কচ্ছপিয়ায় কিশোরি উধাও!

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :

রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন থেকে এক কিশোরি উধাও হয়েছে। ওই কিশোরির নাম পিংকি রাণী দাশ (১৬)। আর তাঁর বাবা হলেন ইউনিয়নের দাশপাড়া এলাকার রাখাল চন্দ্র দাশ।

গত রোববার ২১ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টার পর থেকে পিংকিকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

সে কচ্ছপিয়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ালেখা করেছে।

মেয়ের বাবা জানিয়েছেন, রোববার রাতে পূর্বতিতার পাড়াস্থ হরিমন্দিরে চলমান ধর্মীয় অনুষ্ঠানে (মহোৎসব) যাওয়ার কথা বলে কিশোরিটি বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু পরে গভীর রাত হলেও সে বাড়ি ফেরেনি। এ নিয়ে পরিবারের লোকজন উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রয়েছে। তিনি অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় এক চিহ্নিত যুবক তাঁর মেয়েকে অপহরণ করেছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিবেন বলে জানান তিনি।

এদিকে স্থানীয় সূত্র জানায়, মেয়েটি হিন্দু ধর্মালম্বী হলেও একই এলাকার মনির আহমদ সওদাগরের ছেলে শহিদুল্লাহর সাথে দীর্ঘ তিন বছর ধরে প্রেম নিবেদন করে আসছিলো। মেয়েটি এলাকা থেকে উধাও হওয়ার পর শহিদুল্লাহ বাড়ি থেকে পালিয়েছে।

জানতে চাইলে গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ এএসআই পলাশচন্দ্র সিংহ আমাদের রামুকে জানিয়েছেন, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।