মাঘের শুরুতেই শৈত্যপ্রবাহ ‘আসছে’

অনলাইন ডেস্কঃ
মাঘ মাসের শুরুতে জেঁকে বসা শীতের আমেজ আরও অন্তত তিন দিন অব্যাহত থাকবে; এরই মধ্যে মৃদু থেকে মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শনিবার পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন ৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। রাজধানীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সিলেট, রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের দুয়েক জায়গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১-১৪ সেলসিয়াসের মধ্যে রয়েছে।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেন, “মাঘের শুরুতে তাপমাত্রা কমতে থাকায় শীতের অনুভূতিও বাড়ছে। এখনও কোথাও শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে না। উত্তুরে হাওয়ার সঙ্গে তাপমাত্রা কম থাকায় বেশ ঠাণ্ডা অনুভূত হচ্ছে। আগামী কয়েকদিনে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যতে পারে।”

বড় এলাকাজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। তাপমাত্রা ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি এবং তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলে।

এমনিতে বাংলাদেশে জানুয়ারিতেই শীতের প্রকোপ থাকে বেশি। এ মাসে দুয়েকটি মাঝারি থেকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহের আভাস রয়েছে।

বজলুর রশীদ বলেন, “শীতের এমন আবহাওয়া অন্তত তিন দিন অব্যাহত থাকবে। তবে তীব্র শৈত্যপ্রবাহে বয়ে যাওয়ার শঙ্কা নেই। সপ্তাহের শেষ দিকে ফের তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে।”

চলতি মৌসুমে ২০ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গায় ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। সে সময় তিন দিন গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, যশোর, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা ও বরিশাল অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ ছিল।

জানুয়ারির শুরুতেও কয়েকদিন শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। মাঝ জানুয়ারিতে এসে আরেক দফা শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার আভাস দেওয়া হচ্ছে।

রোববারের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারের।

আকাশ আংশিক মেঘলা এবং আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও থাকতে পারে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা।

সূত্রঃ বিডিনিউজ