এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা বছরের মাঝামাঝি: শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ
২০২২ সালে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সরকার নিতে চায় জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‌‌‌‌‘যারা পরীক্ষা দেবে তারা পড়াশোনা করতে পারেনি। আমরা একটা আভাস দিয়েছি যে বছরের মাঝামাঝি নেবো। ক্লাস করিয়ে নিয়ে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে বছরের মাঝামাঝি পরীক্ষা নেবো আমাদের সিদ্ধান্ত সে জায়গায় আছে।’

সোমবার (১০ জানুয়ারি) সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

ঠিক কবে নাগাদ পরীক্ষা হতে পারে- এমন প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‌‘সুনির্দিষ্ট তারিখ দেওয়া সম্ভব নয়। আমরা (করোনা পরিস্থিতি) পর্যক্ষেণ করবো, ক্লাস করাতে থাকবো, যখন নেওয়ার মতো হবে, তখন নিবো। দুই-তিন মাস আগে আমরা নির্দিষ্ট তারিখ জানাতে পারবো।’

পরীক্ষা নিয়ে বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও কিছু পোর্টালে বিভ্রান্তি ছড়ানো হয় উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে দীপু মনি বলেন, ‌’পরীক্ষার আয়োজন করবে শিক্ষা বোর্ডগুলো। পরীক্ষা কবে হবে কীভাবে হবে সেটা বলে দেওয়া হয়। অন্য কে কী বললো দয়া করে শুনবেন না, গুজবে কান দেবেন না। চটকদার অনেক সংবাদ পরিবেশন করে তাদের একটা রোজগার হয়। তাই অন্য কে কী বলল তাদের কথা না শুনে যাদের মূল দায়িত্ব তারা কী বলে সেটা শুনবো।’

মন্ত্রী বলেন, ‌’২০২০ সালে এসএসসি পরীক্ষা নিতে পেরেছিলাম, এইচএসসি নিতে পারিনি। ২০২১ সালে আমরা বলেছিলাম দেরিতে হলেও নেওয়ার চেষ্টা করবো, আমরা নিতে পেরেছি। পরিস্থিতি পক্ষে ছিল, নিয়েছি। নতুন বছর ২০২২ সালেও আমরা পরীক্ষা নিতে চাই।’

সংবাদ সম্মলনে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব আবু বকর সিদ্দিক, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব আমিনুল ইসলাম খান ও মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক উপস্থিত ছিলেন।