বছরের শুরুতেই নতুন বই পাবে শিক্ষার্থীরা: শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেওয়া হবে। প্রতি বছর এ নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখানো হলেও আমরা সময়মতো শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিচ্ছি। তবে, এ বছর পাঠ্যপুস্তক উৎসব নাও হতে পারে।

 

 

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) এসএসসি-সমমান পরীক্ষার নিরাপত্তা সংক্রান্ত কমিটির বৈঠক শেষে সংবাদসম্মেলনে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রতি বছর নির্ধারিত সময়ে বই দেওয়া যাবে বলে গণমাধ্যমে নানা ধরনের সংবাদ প্রকাশ হয়ে থাকে। প্রকৃতপক্ষে আমরা বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিচ্ছি। এবারও তার ব্যত্যয় হবে না, বছরের শুরুতে নতুন বই পাবে শিক্ষার্থীরা। তবে, গত বছর পাঠ্যপুস্তক উৎসব করা সম্ভব হয়নি, এবারও হয়তো পাঠ্যপুস্তক উৎসব করা সম্ভব হবে না।

এইচএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে আয়োজনের বিষয়ে দীপু মনি বলেন, শিক্ষার্থীদের শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করা গেলেও কেন্দ্রের বাইরে অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধির কোনো তোয়াক্কা করছেন না। আমরা আশা করবো, অভিভাবকরা এটি মেনে চলবেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিভিন্ন কোচিং সেন্টার রয়েছে। কখনও কখনও এসব কোচিং সেন্টারকে ভিত্তি করেই বিভিন্ন গুজব ছড়ানোর অপচেষ্টা করা হয়। তাই পরীক্ষা চলাকালীন সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আশাকরি, কোচিং সেন্টারের মালিকরা এটি মেনে চলবেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিষয়টি তদারকি করছে।

যানজটের কারণে পরীক্ষার হলে পৌঁছাতে শিক্ষার্থীদের দেরি হচ্ছে এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, আগামী বছর থেকে যেসব পরীক্ষায় ছাত্র-ছাত্রী বেশি থাকে সেগুলো দেরিতে বা ‘অফিস আওয়ার’ শুরুর পরে পরীক্ষা শুরু করা যায় কি-না সে ব্যাপারে ভাবছি।

সূত্রঃ জাগোনিউজ