রামুতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক

ভোটের পরিবেশ নষ্ট করে, কেউ কোন সুবিধা নিতে পারবেন না

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামু:
রামুতে নির্বাচন পরিস্থিতি কঠোরভাবে মনিটরিং করা হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের বিধিবিধান অনুযায়ী রামুর এগার ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আইন শৃংখলা বাহিনী ও দায়িত্বরত রির্টানিং অফিসাররা কঠোর হস্তে মনিটরিং করবেন। যে কোন পরিস্থিতিতে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্ঠা করলে বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবেনা। ভোটের পরিবেশ নষ্ট করে, কেউ কোন সুবিধা নিতে পারবেন না।

রামুতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ এ কথা বলেন।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) বেলা ১২টায় রামু উপজেলা পরিষদ মিলনায়নে ইউনিয়ন পরিষদ সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেজ, জেলা নির্বাচন অফিসার এস এম শাহাদাত হোসেন প্রমুখ।

রামুতে ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য উপজেলার এগার ইউপি নির্বাচনে ৬৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমার সভাপতিত্বে ও সভা সঞ্চালনায় সভায় বক্তৃতা করেন, রামু থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাচন অফিসার মাহফুজুল ইসলাম।

প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীদের অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আমি বিনয়ের সাথে আপনাদের সহযোগিতার কামনা করছি। আপনি প্রার্থী, আপনার এলাকায় যে ঘটনাগুলো ঘটে, ভোট কেন্দ্রের যে কোন পরিস্থিতির জন্য আপনার ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনাদের সকলের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আচরণবিধি অনুযায়ি নির্বাচনে আমরা আমাদের দায়িত্ব পেশাদারিত্বের সাথে পালন করবো। কেউ বিশৃঙ্খলা করার চেষ্ঠা করলে বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবেনা। সারাদেশে যেভাবে উৎসব মুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে, ঠিক তেমনি ভাবে রামুতেও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন, চাকমারকুল ইউপি নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল আলম, সাইফুল ইসলাম, মো. আবদুল মজিদ। ফতেখাঁরকুল ইউপি নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভূট্টো, গর্জনিয়া ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মুজিবুর রহমান বাবুল, স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম মওলা। ঈদগড় ইউপি নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভূট্টো, নুরুল আজিম, জোয়ারিয়ানালা ইউপি নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান এম এম নুরুচ্ছাফা, রাশেদুল ইসলাম, কচ্ছপিয়া ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আমিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আবু মো. ইসমাঈল নোমান, মো. আবু তালেব, কাউয়ারখোপ ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা পরিষদ সদস্য শামশুল আলম, সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, রশিদনগর ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মো. মোয়াজ্জেম মোর্শেদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. হান্নান সিদ্দিকী। রাজারকুল ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সরওয়ার কামাল সোহেল, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, শাহেদ উল্লাহ আনছারী (আনারস)। দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি নির্বাচনের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও মহিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি খোদেসতা বেগম রীনা, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মো. সাইফুল আলম, সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। মতবিনিময় সভায় রামু উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ সাধারণ নির্বাচনে দায়িত্ত¡প্রাপ্ত পাঁচজন রির্টানিং অফিসার, এগার ইউপি নির্বাচনের প্রতিদ্ব›দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থী ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।