টিকার মিশ্র ডোজ ভয়ঙ্কর বিপদ আনতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

অনলাইন ডেস্কঃ
থাইল্যান্ড তাদের গণটিকাদান কর্মসূচির নীতি পরিবর্তন করে দু’রকম টিকা মিলিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। করোনাভাইরাসের অতি সংক্রামক ডেলটা ধরনের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এ পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। মিশ্র টিকা গ্রহণে নাগরিকদের উদ্বুদ্ধ করতে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলও দুই দফায় দু’রকমের টিকা নিয়েছেন। তবে এই প্রবণতা ভয়ঙ্কর বিপদ ডেকে আনতে পারে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। খবর বিবিসি ও এএফপির।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন বলেছেন, মিশ্র টিকার কার্যকারিতা সম্পর্কে নিশ্চিতভাবে কিছু জানা নেই। এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্যপ্রমাণ মেলেনি এখন পর্যন্ত। তাই দু’রকমের টিকা নেওয়ার এই প্রবণতা ভয়ঙ্কর বিপদ ডেকে আনতে পারে। তিনি বলেন, এখন নাগরিকরাই যদি ঠিক করতে শুরু করে যে, কে কখন দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ ডোজে নেবে, তাহলে সেটা দেশে দেশে বিশৃঙ্খলা তৈরি করবে।

মিশ্র টিকা করোনার বিরুদ্ধে কতটা কার্যকর, তা নিয়ে গোটা বিশ্বেই গবেষণা চলছে। বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, দু’বার দু’রকমের টিকা নিলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। জার্মানি এবং ইউরোপের একাধিক দেশে ইতোমধ্যেই দু’বার দু’রকমের টিকা নেওয়ার নিয়ম চালু হয়েছে।

সূত্রঃ সমকাল