হোয়াটসঅ্যাপ লগ ইন আরও সুরক্ষিত হচ্ছে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্কঃ
হোয়াটসঅ্যাপের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে নিত্য নতুন ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে কর্তৃপক্ষ। প্রতিনিয়ত হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ গ্রাহকদের সেবার মান উন্নত করার চেষ্টা করছেন। ব্যবহারকারীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে এবার নতুন ফিচার আনছে হোয়াটসঅ্যাপ।

খুব শীঘ্রই হোয়াটসঅ্যাপ লগইন ওটিপি-তে পরিবর্তন করতে চলেছে। এর ফলে আরও সুরক্ষিত হবে হোয়াটসঅ্যাপ। সেই সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ-এর ওটিপি লগইন অতীতের কোনো বিষয় অপশনাল হয়ে যেতে পারে। ডব্লিউবিটাইনফো-এর নতুন রিপোর্ট অনুযায়ী, হোয়াটসঅ্যাপ ‘ফ্ল্যাশ কল’ নামে একটি নতুন ফিচার পরীক্ষা করছে, যার উদ্দেশ্য হলো বর্তমানে ওয়ান-টাইম পাসওয়ার্ড (ওটিপি) ইউজার লগইনের অথেন্টিসিটি যাচাইের পরিবর্তন করা।

ফ্ল্যাশ কলের জন্য ব্যবহারকারিদের তাদের ফোনের ডায়ালারের পাশাপাশি কল তালিকাযর অ্যাক্সেস হোয়াটসঅ্যাপকে দিতে হবে। যদিও এই ফিচারটি অপশনাল হবে, তবে হোয়াটসঅ্যাপ লগইন ফ্ল্যাশ কলটিকে আরও সুরক্ষিত বিকল্প হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে। তবে বলা হয়েছে যে কেবল কিছু ব্যবহারকারীরাই এটি ফিচারটি ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন। অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা শীঘ্রই এই ফিচারটি পেতে পারেন। কিন্তু আইওএস ইউজাররা এটি ব্যবহার করতে পারবে না।

হোয়াটসঅ্যাপ ফ্ল্যাশ কলের ফিচারের জন্য ইউজারদের অ্যাপে অনুমতি দিতে হবে। অনুমতি পেয়ে গেলে, হোয়াটসঅ্যাপ সার্ভারটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীর ফোন থেকে কল করবে, এবং তারপরে সেটি নিজের থেকেই কেটে যাবে।

jagonews24

এটি করে, হোয়াটসঅ্যাপের পুরানো পদ্ধতি ওটিপি পাসওয়ার্ডটি যা ম্যানুয়ালি আপডেট করতে হতো সেটির আর প্রয়োজন হবে না, যে সব সময় নতুন দিভাইসে লগইন করার চেষ্টা করলে দরকার পড়ত। সম্প্রতি, ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ইনস্টল করার সময়েই ফাঁদ পাতছিল সাইবার অপরাধীরা।

এসএমএস-এর মাধ্যমে যে ওটিপি মোবাইলে আসে, তা কোনোভাবে হ্যাক করা হচ্ছে। সেটির মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ ইনস্টল করছে ওই অপরাধী। তারপর ব্যবহারকারীদের অজান্তেই ঘটছে অপরাধ।

বিটা রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ফিচারটির উপরে কাজ চলছে, আর ব্যবহারকারীদের কাছে উপস্থাপনের সেরা উপায় সন্ধান করছে হোয়াটসঅ্যাপ। বর্তমানে বিটা আপডেটের রিপোর্টে সামনে এসেছে যে হোয়াটসঅ্যাপ অটোমেটিক ভেরিফিকেশন কল স্ক্রিনটি অ্যাপটিকে জানায় যে কেন তার অনুমতির প্রয়োজন, একক লাইনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যে হোয়াটসঅ্যাপ কেবল কল লগ এবং ডায়ালার একবারেই অ্যাক্সেস করবে, তার পরে আর নয়। স্ক্রিনটি কল প্রক্রিয়াসহ যাচাইকরণ বর্ণনা করার জন্য একটি পেজেও ব্যবহারকারীদের লিঙ্ক করবে।

তবে এটি অ্যান্ড্রয়েড ইউজারদের জন্য আত্মপ্রকাশ করলেও আইওএস ব্যবহারকারীরা এই ফিচারটির অ্যাক্সেস পাবেন না। কারণ অ্যাপল এমন কোনো এপিআই সরবরাহ করে না যা ব্যবহারকারীর ডায়ালার এবং কল তালিকার কোনো অ্যাপ্লিকেশনকে অ্যাক্সেস দেয়, যার অর্থ আইফোনের সমস্ত ব্যবহারকারী হোয়াটসঅ্যাপে লগইন করতে ওটিপির উপরেই নির্ভর থাকতে হবে।

কলিং সেবা অ্যাপটিকে স্ক্যামারদের হাত থেকে বাঁচাতে সাহায্য করতে পারবে, কারণ এটি সমস্ত ম্যানুয়াল ইনপুটকে বাইপাস করে আর আক্রমণকারীদের ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট জোর করে দখলের চেষ্টা করার কোনো উপায় দেয় না।

সূত্র: জাগোনিউজ