পোকখালীতে “ইয়াসে” ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ ও রাস্তা পরিদর্শন করলেন কউক চেয়ারম্যান

বার্তা পরিবেশকঃ
কক্সবাজার সদর উপজেলার পোকখালী ইউনিয়নে ঘুর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ ও ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক পরিদর্শন করেছেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অবঃ)ফোরকান আহমদ।

২৮ মে শুক্রবার বিকেলে কউক চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি দল উক্ত ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যায় এবং পরিদর্শন পরবর্তি স্থানীয় জনসাধারণ কতৃক আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন।

ভাঙা বেড়িবাঁধ ও সড়ক পরির্দশনের সময় কউক চেয়ারম্যানের সঙ্গে ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফর রহমান আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক মহিদ উল্লাহ, জেলা পরিষদ সদস্য সোহেল জাহান চৌধুরী , পোকখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিক আহমদ, জালালাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম, পোকখালী ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি মোজাহের আহমদ, সদর যুবলীগের সহ-সভাপতি ওসমান সরওয়ার ডিপু, ঈদগাঁও থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবুহেনা বিশাদ, ঈদগাঁও থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইরফানুল করিম, পোকখালী যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম সুজন, ছাত্রনেতা সোহেল মাহমুদ রোহান, ছৈয়দ মোহাম্মদ তামিম, সোয়াইফুল হক, সোহাইল, নজরুল সহ প্রমুখ।

কউক চেয়ারম্যান বলেন, পোকখালীবাসীর সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক এই পোকখালীবাসী কষ্ট পাবে আমি ঘরে বসে থাকবো তা কখনো হয় না। ঘুর্ণিঝড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ এখানে কারো হাত নেই এ দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্য উপকূলীয় অঞ্চলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করে রেখেছেন যা আমাদের সব সময় কাজে আসতেছে এবং অতিথের চেয়ে বর্তমানে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেক গুনে কমে গেছে। ঘুর্ণিঝড় ইয়াসের কারণে এখানে যে পরিমাণ বেরি বাঁধ এবং সড়ক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে তা অত্যান্ত দুঃখ জনক । ইনশাআল্লাহ এই ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ এবং রাস্তা অতি শিগগিরী মেরামত করা হবে এতে আপনাদের সহযোগিতা একান্তভাবে কামনা করছি।

তিনি আরো বলেন, আমি যেহেতু অন্য একটা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে আছি আমারো কিছু নিজস্ব কাজ রয়েছে যে গুলা করতে গেলে এই কাজের অগ্রগতি নাও হতে পারে তাই আমি মনে করি আপনাদের নিজস্ব একটা টিম সব সময় পানি উন্নয়ন বোর্ড সহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ রাখবেন আমি সব কিছু আপনাদের হয়ে ব্যবস্তা করে দিব। এবং ইনশাআল্লাহ অতি শিগগিরী সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই পোকখালী বাসী একটি টেকসই বাধ এবং রাস্তা পাবে বলে আস্বস্ত করেন।

বাঁধ এবং রাস্তা পরিদর্শন শেষে কউক চেয়ারম্যান স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার গুলির খুজ খবর নেন এবং তাদের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন