টেস্টের শীর্ষে ভারত, পয়েন্ট হারাল বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্কঃ
আগামী মাসে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ট্রফি জয়ের লড়াইয়ে নামবে ভারত ও নিউ জিল্যান্ড। বার্ষিক হালনাগাদের পর আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম দুই স্থানেও আছে এই দুই দলই। সেখানেও লড়াই হাড্ডাহাড্ডি। কিউইদের চেয়ে স্রেফ এক পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শীর্ষে ভারত। এই হালনাগাদে বাংলাদেশ হারিয়েছে ৫ রেটিং পয়েন্ট।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হালনাগাদে ২০১৭-১৮ মৌসুমের পারফরম্যান্স চলে গেছে বিবেচনার বাইরে। গত বছরের মে থেকে এই পর্যন্ত পারফরম্যান্স বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে শতভাগ, ২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০ মৌসুমের পারফরম্যান্স বিবেচিত হয়েছে ৫০ ভাগ।

গত এক বছরে চার টেস্ট খেলে তিনটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ, ড্র করতে পেরেছে একটি। বিবেচনায় নেওয়া আগের দুই মৌসুমে ১৩ টেস্টের ৯টিতেই ছিল পরাজয়। এর মধ্যে ছিল আফগানিস্তান ও জিম্বাবুয়ের কাছে দেশের মাঠে হারও। এই সময়টায় চার জয়ের দুটি করে ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দেশের মাঠে।

এই পারফরম্যান্সের কারণে বাংলাদেশকে হারাতে হয়েছে ৫ রেটিং পয়েন্ট। ৪৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ৯ নম্বর অবস্থান অবশ্য এখনও হারাতে হয়নি। হালনাগাদে ৮ রেটিং পয়েন্ট বাড়লেও জিম্বাবুয়ে আছে ১০ নম্বরে। তাদের রেটিং পয়েন্ট ৩৫।

হালনাগাদে এক রেটিং পয়েন্ট বেড়ে ভারতের পয়েন্ট এখন ১২১, দুই রেটিং পয়েন্ট বেড়ে নিউ জিল্যান্ডের হয়েছে ১২০।

তিন রেটিং পয়েন্ট বেড়ে তিনে থাকা ইংল্যান্ডের পয়েন্ট ১০৯। ১০৮ পয়েন্ট নিয়ে চারে অস্ট্রেলিয়া, তারা হারিয়েছে পাঁচ পয়েন্ট। ২০১৭-১৮ অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ইংল্যান্ডের ৪-০তে হার এবার বিবেচনার বাইরে চলে যাওয়ায় রদবদল হয়েছে এই দুই দলের অবস্থানে।

৯৪ পয়েন্ট নিয়ে পাকিস্তান আছে পাঁচে, তাদের বেড়েছে তিন পয়েন্ট।

হালনাগাদে বড় সুখবর পেয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অষ্টম থেকে তারা উঠে এসেছে ষষ্ঠ স্থানে, ২০১৩ সালের পর এটা তাদের সেরা অবস্থান। তিন রেটিং পয়েন্ট বেড়ে ক্যারিবিয়ানদের পয়েন্ট এখন ৮৪।

দক্ষিণ আফ্রিকা পেয়েছে এর উল্টো স্বাদ। ৯ রেটিং পয়েন্ট হারিয়ে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে তারা নেমে গেছে সাতে, টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের ইতিহাসে যা তাদের সর্বনিম্ন অবস্থান। সাতে অবশ্য তারা নেমেছিল আগেও।

আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ড টেস্ট মর্যাদা পেলেও র‌্যাঙ্কিং তালিকায় জায়গা পাওয়ার মতো যথেষ্ট ম্যাচ তারা এখনও খেলতে পারেনি।

সূত্রঃ বিডিনিউজ