গর্জনিয়ায় বাবা-ছেলের কল্যাণে নগদ অর্থ সহায়তা পেল দুই শ পরিবার

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী:
করোনা মহামারির প্রথম ধাক্কার মতো দ্বিতীয় ধাক্কার এই দুঃসময়েও জীবন-জীবিকা নির্বাহের জন্য আবারও মানবিক সহায়তা নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন গর্জনিয়ার জুমছড়ির কৃতি সন্তান আমেরিকা প্রবাসি মো. ফরিদুল আলম।

তিনি তাঁর বাবার নামে গঠন করেন “ মরহুম আলহাজ্ব রশিদ আহমদ (বিএ) চ্যারিটি ফান্ড”। ওই ফান্ডে নিজেই দেন এক লাখ টাকা। যেখানে আগে থেকেই বাবার ইছালে সওয়াবের উদ্দেশ্যে পরিবারের সদস্যরা রেখেছেন লাখ লাখ টাকা।

সম্প্রতি মরহুম আলহাজ্ব রশিদ আহমদ (বিএ) চ্যারিটি ফান্ডের পক্ষ থেকে ওই অঞ্চলের অতি দরিদ্র, কর্মহীন, দিনমজুর, রিকশা ও ভ্যানচালক, পরিবহন শ্রমিক এবং কৃষকসহ মহামারির ছোবলে ক্ষতিগ্রস্ত স্বল্প আয়ের দুই শত পনের পরিবারের মাঝে নগদ ১,০০০ হাজার টাকা করে বিতরণ করা হয়েছে।

বিতরণ অনুষ্ঠানে গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, আলহাজ্ব রশিদ আহমদ (বিএ) চ্যারিটি ফান্ডের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবুল কাশেম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

কঠিন এ সময়ে স্বল্প আয়ের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার অসহায় মানুষকে জীবন-জীবিকার জন্য ২ লাখ ১৫ হাজার টাকা নগদ সহায়তা প্রদানকে একটি দৃষ্টান্ত হিসাবে দেখছেন স্থানীয়রা।

মরহুম আলহাজ্ব রশিদ আহমদ (বিএ) চ্যারিটি ফান্ডের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বলেন- অস্থায়ী কর্মহীন, স্বল্প আয়ের, নিঃস্ব ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মাঝে প্রতি বছর মানবিক এ কর্মকাণ্ড অব্যাহত থাকবে।

জাহাঙ্গীর আলম আরও বলেন- আগামী বছর থেকে অসুস্থ রোগী,গৃহহীন, গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য অগ্রাধীকার ভিত্তিতে আলাদা ফান্ড গঠন করা হবে। এবং এ ফান্ডের অধীনে একটি হেফজ ও এতিম খানা প্রতিষ্টার পরিকল্পনা চলমান আছে- যা ফান্ডের চেয়ারম্যান মো. ফরিদুল আলম আমেরিকা থেকে দেশে আসলে উদ্বোধনের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু হবে।