রামুতে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের প্রতিনিধি সভায় এমপি কমল নৌকার বিরোধিতারীরা আর কোনদিন নৌকা পাবেনা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :
কক্সবাজারের রামুতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন সমুহের প্রতিনিধি সভায় তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেছেন, বিগত সংসদ ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যারা নৌকা প্রতীকের বিরোধীতা করেছে তারা আর কোনদিন নৌকা প্রতীক পাবেনা। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জরিপের ভিত্তিতে জনপ্রিয় নেতাদের হাতে নৌকা প্রতীক তোলে দেবেন। নৌকা বিরোধী ও বিতর্কিত নেতাদের সুপারিশ জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্থান পাবেনা উল্লেখ করে কক্সবাজার সদর আসনের জনপ্রিয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, নৌকা প্রতীক এনে দেয়ার নামে যারা ব্যবসা শুরু করেছে তাদের ব্যাপারেও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ অবগত হয়েছে।

শুক্রবার (২ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬ টায় রামু দুবাই ফিউচার পার্ক কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি কমল উপরোক্ত কথা বলেন।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সাবেক সদস্য, প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, রাজারকুলের সাবেক চেয়ারম্যান জাফর আলম চৌধুরী, মহিলা সম্পাদক মুসরত জাহান মুন্নি, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এড. আব্দুস ছালাম, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি মো. সালাহ উদ্দিন, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল হক কোং, রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুল ইসলাম সিকদার, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, জেলা যুবলীগ নেতা সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ, গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ঈদগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, রামু উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক ফিরোজ আহমদ ভুট্টো, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ যুগ্ম আহবায়ক মো. ইউনুচ ভুট্টো, রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা মুফিজুর রহমান মফিজ, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা আবু মো. ইসমাইল নোমান, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাক আহমদ, রশিদনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা এমডি শাহ আলম, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভুট্টো,

জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক চেয়ারম্যান এম. এম. নুরুচ ছাফা, কাউয়ারখোপ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী, উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এম সেলিম, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রত্যাশী, উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক আবছার কামাল সিকদার, আনচারুল আলম, রামু উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি এড. মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী, সাধারন সম্পাদক তপন মল্লিক, জেলা যুবলীগ নেতা পলক বড়ুয়া আপ্পু, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, ওলামালীগ সভাপতি মৌলানা নুরুল আজিম, জাতীয় শ্রমিকলীগ সভাপতি শফিকুল আলম কাজল, সৈনিকলীগ সভাপতি মিজানুল হক রাজাসহ আওয়ামী লীগের সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক বক্তব্য রাখেন।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আগামী ৭ এপ্রিল রামু খিজারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ওসমান সরওয়ার মিলনায়তনে সামাজিক দুরত্ব বজায় ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে কর্মীসভা এবং ২২ মে রামু স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।