রামুতে শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে জয়ী রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা কোয়ার্টার ফাইনালে

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামু :
রামুতে শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে ভালো খেলেও অভিজ্ঞতার কাছে হার মেনেছে, পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি, উখিয়া। বুধবার (৩১ মার্চ) বিকাল ৪ টায় অনুষ্ঠিত টুর্ণামেন্টের অষ্টম দিনের খেলায় অভিজ্ঞ রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কাছে ২-০ গোলে হেরেছে পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি, উখিয়া। খেলায় ম্যান অবদ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন, রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার নিক্সন চাকমা (জাসি নং ৩)। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে, কক্সবাজার সদর-রামু আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এর প্রধান পৃষ্ঠপোষকতায় রামুতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে, শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট।

রামু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের অষ্টম দিনের খেলায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম। সম্মানিত অতিথি হিসেবে খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হন, রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা। শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট ২০২১ পরিচালনা কমিটির সদস্য লিটন বড়ুয়া মেম্বার এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। টুর্ণামেন্ট পরিচালনা কমিটির ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সম্পাদক দেবপ্রসাদ বড়ুয়া টিপু জানান, বুধবার টুর্ণামেন্টের প্রথম রাউন্ডের শেষ খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ টুর্ণামেন্টে কক্সবাজার জেলার ১৬টি দল অংশগ্রহণ করেছে।

খেলার নির্ধারিত সময়ের প্রথমার্ধের শুরুতে আক্রমণের পর আক্রমণ চালিয়ে অভিজ্ঞ রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থাকে কোনঠাসা করে, পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি, উখিয়া। রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার অভিজ্ঞ খেলোয়াড়রা দক্ষতার সাথে বিপক্ষ দলের আক্রমণ প্রতিহত করে। প্রথমার্ধের ২১ মিনিটে রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার অভিজ্ঞ খেলোয়াড় জাহাঙ্গীর (জাসি নং ৯) গোল করে, দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে নেয়। নিজেদের গোলপোষ্টে বল প্রবেশ করার পরও আক্রমণ অব্যাহত রাখে পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি। বেশ কয়েকবার গোলের সুযোগ পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হয় উখিয়া। দ্বিতীয়ার্ধের ৩০ মিনিটে রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করে, দলের নির্ভরযোগ্য রাইট ডিফেন্ডার নিক্সন চাকমা (জাসি নং ৩)। রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা ২-০ গোলে পালংখালী খেলোয়াড় সমিতিকে পরাজিত করে, কোয়ার্টার ফাইনালে প্রবেশ করে।

খেলা পরিচালনায় আলী হোসেন রেফারী, মো. রশিদ, শাহাদাৎ করিম ও ফরিদুল আলম সহকারি রেফারীর দায়িত্ব পালন করেন। হলুদ কার্ড: পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি’র কাইছার, রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা: দিদার, চাউম চুরগ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন, সুশান্ত পাল বাচ্চু ও ওমর ফারুক মাসুম। খেলায় ধারাভাষ্যে ছিলেন, বেলাল আজম হেলালী ও বিপ্লব মল্লিক।

রামু উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা: সুমন (গোলরক্ষক), সোহেল বড়ুয়া (অধিনায়ক), ধীমান বড়ুয়া, নিক্সন চাকমা, জয়, দিদার, আশিক বড়ুয়া, রিদুয়ান, ইমন, জাহাঙ্গীর, চাউম চুরগ (বিদেশী খেলোয়াড়)। অতিরিক্ত খেলোয়াড়: উৎস, ইমন-২, পারভেজ, তড়িৎ বড়ুয়া, সুফল বড়ুয়া আব্বু।

পালংখালী খেলোয়াড় সমিতি, উখিয়া: শাহাব উদ্দিন (গোলরক্ষক), মো. মেহেদী (অধিনায়ক), মো. ইব্রাহিম, আবু হানিফ, মগবুল আহমদ, কাইছার, মো. ইফতি, মো. রাশেল, নকিব, সোনা মিয়া। অতিরিক্ত খেলোয়াড়: মামুন, সাইফুল, আনসার, সাইফুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, আবুল কালাম।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) রামু ষ্টেডিয়ামে শেখ রাসেল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেণ্টের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম খেলায় মুখোমুখি হবে ‘শেখ জামাল ক্লাব, চকরিয়া’ বনাম ‘সম্প্রীতি কচ্ছপিয়া একাদশ, রামু’।