সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলা : ২২ আসামির জামিন না মঞ্জুর

অনলাইন ডেস্কঃ
সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় আটক ২২ জনের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। শুক্রবার (১৯ মার্চ) জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম ইসরাত জাহানের আদালতে তোলা হলে তিনি এ আদেশ দেন।

সুনামগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. সেলিম নেওয়াজ বলেন, ‘কড়া নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে আটক আসামিদের আদালতে আনা হলে বিচারক তাদের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (১৮মার্চ) রাতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে ওই ২২ জনকে আটক করে।’

গত সোমবার (১৫ মার্চ) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঝুমন দাস আপন (২৩) নামে এক যুবক অল্লামা মামুনুল হককে নিয়ে কটাক্ষ করেন। মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) রাতে স্থানীয়রা ওই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এদিকে খবরটি ছড়িয়ে পড়লে বুধবার (১৭ মার্চ) সকালে আশপাশের গ্রামের কয়েক হাজার লোক রামদা, লাঠি-সোটা নিয়ে নোয়াগাঁও গ্রামে হামলা চালায়।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ মজুমদার বকুল বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। অপর মামলাটি দায়ের করেন শাল্লা থানার এসআই আব্দুল করিম। দুই মামলা দেড় হাজারের বেশি মানুষকে আসামি করা হয়েছে।

এর আগে ১৫ মার্চ (সোমবার) সুনামগঞ্জের দিরাই স্টেডিয়ামে হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক লক্ষাধিক মানুষের সামনে বক্তব্য দেন।

সূত্রঃ জাগোনিউজ