‘মেসির পাশে খেলাটাই আনন্দের’

ক্রীড়া ডেস্কঃ
লিওনেল মেসিকে সতীর্থ হিসেবে পাওয়া যে কোনো তরুণ ফুটবলারের কাছেই স্বপ্নপূরণের মতো। পেদ্রিও এর ব্যতিক্রম নয়। আর্জেন্টাইন তারকার পাশে খেলা সবসময় উপভোগ করেন বার্সেলোনার এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার।

বার্সেলোনার হয়ে অভিষেক মৌসুমেই নজরকাড়া পেদ্রি বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য সোমবার দেওয়া স্পেন জাতীয় দলে প্রথমবারের মতো ডাক পান। এই দিনই লা লিগায় ঘরের মাঠে ওয়েস্কাকে ৪-১ গোলে হারায় বার্সেলোনা। ক্লাবের ইতিহাসে চাভি এরনান্দেসের সর্বোচ্চ ম্যাচের (৭৬৭) রেকর্ড স্পর্শ করা ম্যাচে জোড়া গোল করেন মেসি, একটি গোলে রাখেন অবদান।

ম্যাচ শেষে রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলারের পাশে খেলার অভিজ্ঞতা জানানোর সময় ১৮ বছর বয়সী পেদ্রির কণ্ঠে ছিল ভালোলাগার ছোঁয়া।

“লিওর পাশে খেলা পরম আনন্দের। আমি প্রতিদিন অনুশীলনে যাওয়া উপভোগ করি।”

“যখনই আমি বল পাই, চেষ্টা করি তাকে (মেসিকে) পাস দিতে কারণ তার কাছে বল যাওয়া মানে কিছু একটা ঘটার সম্ভাবনা। তার অর্জনগুলো অবিশ্বাস্য। তিনিই বিশ্বসেরা।”

এদিন বার্সেলোনার জয়ে অন্য গোল দুটি করেন অঁতোয়ান গ্রিজমান ও অস্কার মিনগেসা। শীর্ষে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে ব্যবধানও কমিয়ে এনেছে কাতালান দলটি।

২৭ ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট শীর্ষে আতলেতিকো। দুইয়ে ফেরা বার্সেলোনার পয়েন্ট ৫৯। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের চেয়ে ২ পয়েন্ট কম নিয়ে তিনে রিয়াল মাদ্রিদ।

সূত্রঃ বিডিনিউজ