পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন: মিঠুন চক্রবর্তী বিজেপির প্রার্থী হতে পারেন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) প্রার্থী হতে পারেন জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী।

পশ্চিমবঙ্গে দায়িত্বরত বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় শুক্রবার এমন সম্ভাবনার কথা জানান বলে জানায় কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার।

শিলিগুড়িতে সিপিএম নেতা শঙ্কর ঘোষের বিজেপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে এক বক্তৃতায় কৈলাস বলেন, ‘‘মিঠুন নিজে নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাইছেন না। কিন্তু আমরা তার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলবো, তাকে বিধানসভা ভোটে প্রার্থী করার চেষ্টা করবো।”

গত ৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন মিঠুন। যিনি একসময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এখন যদি তিনি বিজেপির প্রার্থী হয়ে সেই তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ভোটের লড়াইয়ে নামেন তবে তা নিঃসন্দেহে বিধানসভা নির্বাচনে নতুন উত্তেজনা যোগ করবে।

আনন্দবাজার জানায়, বিজেপিতে যোগ দেওয়ার দুইদিন পরই মিঠুনের জন্য কেন্দ্র সরকার থেকে ‘ওয়াই প্লাস’ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা বরাদ্দ করা হয়েছে।

সাধারণ ভারতের গুরুত্বপূর্ণ কোনো ব্যক্তির উপর হামলার হুমকি থাকলে কেন্দীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ ধরনের নিরাপত্তা বরাদ্দ করা হয়। মিঠুন যেন নির্বিঘ্নে বিজেপির হয়ে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেন, সেজন্য এ ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর শুরুতে মিঠুনকে নির্বাচনী প্রচারেই কাজে লাগানোর কথা ছিল। বলিউড ও টালিউডের এই অভিনেতা পশ্চিমবঙ্গে দারুণ জনপ্রিয়। তিনি সেখানে ‘মহাগুরু’ নামে পরিচিত।

শুক্রবার থেকেই মিঠুনের নির্বাচনী প্রচারে নামার কথা ছিল বলে জানায় আনন্দবাজার। ঠিক ছিল, শুভেন্দু অধিকারী নন্দীগ্রামে বিজেপির হয়ে মনোনয়ন দাখিলের পর মিঠুন তার হয়ে নন্দীগ্রামে যাবেন। কিন্তু শেষপর্যন্ত তা হয়নি। এদিন মিঠুন নন্দীগ্রাম যাননি।

শোনা যাচ্ছে, মিঠুন ভোটের প্রচারে রোববার কেশপুরে যাবেন। যদিও তার প্রচারসূচি এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি বলে জানিয়েছে বিজেপি। মিঠুন আপাতত কলকাতাতেই আছেন।

সূত্রঃ বিডিনিউজ