রংপুরে হিন্দু পল্লীতে তাণ্ডব, ৪৪ জনের জামিন নাকচ

অনলাইন ডেস্কঃ
রংপুর সদর উপজেলার পাগলাপীর ঠাকুরপাড়ার হিন্দু পল্লীতে অগ্নিসংযোগ ও তাণ্ডবের ঘটনায় করা মামলায় ৪৪ জনের জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে গঙ্গাচড়া আমলি আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোয়েবুর রহমান এ আদেশ দেন। কোর্ট ইন্সপেক্টর নাজুমল কাদের বিষয়টি নিশ্চত করেছেন।

প্রসঙ্গত, মহানবীকে (সা.) নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি ও অবমাননাকর ছবি পোস্ট করার অভিযোগে ২০১৭ সালের ৬ নভেম্বর ঠাকুরপাড়ার মৃত খগেন রায়ের ছেলে টিটু রায়ের বিরুদ্ধে রংপুর সদর উপজেলার খলেয়া ইউনিয়নের শলেয়াশাহ গ্রামের মুদি দোকানি রাজু মিয়া গঙ্গাচড়া থানায় তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করেন। এরপর শুক্রবার (১০ নভেম্বর) জুমার নামাজের পর টিটু রায়ের ফাঁসির দাবিতে শলেয়াশাহ বাজারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে স্থানীয়রা। পরে কয়েক হাজার মানুষ ঠাকুরবাড়ি গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের কয়েকটি বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট করে।

এ নিয়ে স্থানীয় মুসল্লি ও গ্রামবাসীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়। এ ঘটনায় আহত হন পুলিশসহ ১৫ জন।

এ ঘটনায় সদর ও গঙ্গাচড়া থানায় দুটি মামলা হয়। গঙ্গাচড়া থানার মামলায় ২২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেন তৎকালীন তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মকবুল হোসেন। চার্জশিটভুক্তদের মধ্যে এজাহারভুক্ত ৪৪ জন মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

সূত্রঃ জাগোনিউজ