শনিবার রাত থেকে ফের শৈত্যপ্রবাহ

অনলাইন ডেস্কঃ
এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দেশের কিছু অঞ্চলের ওপর দিয়ে শৈত্যপ্রবাহ বইছে। এর মধ্যে দু’দিন ধরে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়লেও আবার কমতে শুরু করেছে। এমন প্রেক্ষাপটে শনিবার রাত থেকে দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলের ওপর দিয়ে বইতে পারে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত কুয়াশা পড়া আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মৃদু শৈত্যপ্রবাহের মধ্যে হঠাৎ গত দু’দিন আবহাওয়া উষ্ণ হয়ে ওঠে। শুক্রবার টেকনাফে তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় তাপমাত্রা উঠেছিল ২৭ ডিগ্রিতে। এদিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল নীলফামারীর ডিমলায় ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় তাপমাত্রা ১৪ দশমিক ৬ ডিগ্রির নিচে নামেনি।

আবহাওয়াবিদ আশরাফ উদ্দিন বলেন, সপ্তাহের শুরুতে অনেক এলাকাজুড়ে শৈত্যপ্রবাহ ছড়িয়ে পড়লেও এখন তা নেই। তাপমাত্রাও আগের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। তবে একই সময়ে বেড়েছে কুয়াশার পরিমাণ। বিশেষ করে নদী-তীরবর্তী এলাকায় এর পরিমাণ এখন বেশি। শনিবার রাত থেকেই তাপমাত্রা কোনো কোনো এলাকায় ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যেতে পারে। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চল, মধ্যাঞ্চল এবং দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে এই শৈত্যপ্রবাহ। এটি মাঝারি মাত্রার এবং বেশিদিন স্থায়ী হবে।

কুয়াশার বিষয়ে তিনি বলেন, দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে যে বাতাস আসছে, তার সঙ্গে জলীয় বাষ্প মিশে আর্দ্রতা বাড়িয়ে দিচ্ছে। এতে ঘন কুয়াশা সৃষ্টি হচ্ছে। এটি এই মাসে এমনই থাকবে। জানুয়ারি মাসেও এই কুয়াশার দেখা পাওয়া যাবে বলে তিনি জানান।

সমকালের পঞ্চগড় প্রতিনিধি জানান, শীতপ্রবণ এলাকা হিসেবে পরিচিত উত্তরের জনপদ পঞ্চগড়ে টানা আট দিন ধরে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার সকালে সর্বনিম্ন ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। গত ১৮ ডিসেম্বর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এরপর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যেই ওঠানামা করে। শৈত্যপ্রবাহে জনজীবনে দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুস্ক থাকতে পারে। এ ছাড়া শুক্রবার মধ্য রাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। দেশের অন্য অঞ্চলে হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে।

সূত্রঃ সমকাল