মেসিকে কখনও প্রতিদ্বন্দ্বী ভাবিনি : রোনালদো

ক্রীড়া ডেস্কঃ
মঙ্গলবার রাতে প্রায় আড়াই বছর পর একে অপরের মুখোমুখি হয়েছেন বর্তমান সময়ের দুই সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে রোনালদোর জুভেন্টাসের কাছে ০-৩ গোলে হেরে গেছে মেসির বার্সেলোনা। জোড়া গোল করেছেন রোনালদো। গোলের দেখা না পেলেও, পুরো ম্যাচে দারুণ খেলেছেন মেসি।

সারাবিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষা করছিলেন মেসি ও রোনালদোর মুখোমুখি এই ম্যাচ দেখার জন্য। জোড়া গোল করে মেসির চেয়ে নিজেকে এগিয়ে রেখেছেন রোনালদো। যা তর্কে জেতার বড় অস্ত্র দিয়েছে তার ভক্ত-সমর্থকদের। তবে ম্যাচশেষে রোনালদো সাফ জানিয়েছেন, মেসিকে কখনও প্রতিদ্বন্দ্বী ভেবে খেলেননি তিনি।

বার্সেলোনার কাছে প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ০-২ গোলে হেরেছিল জুভেন্টাস। মঙ্গলবার ৩-০ গোলের জয়ে প্রতিশোধ নেয়ার পাশাপাশি পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থেকেই গ্রুপপর্ব শেষ করেছে ইতালিয়ান ক্লাবটি। দুই পেনাল্টি থেকে দুইটি গোল করে চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজের গোলসংখ্যাকে ১৩৪-এ উন্নীত করেছেন রোনালদো।

ম্যাচ শেষে মভিস্টারকে দেয়া সাক্ষাৎকারে রোনালদো বলেছেন, ‘মেসির সঙ্গে সবসময় বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আমার। আমরা প্রায় ১৩-১৪ বছর পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে একসঙ্গে উঠেছি। আমি কখনও তাকে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ভাবিনি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘মেসি সবসময় তার দলের জন্য সেরাটাই করার চেষ্টা করে। যেমনটা আমিও করি। সবসময় তার সঙ্গে আমার দারুণ মিলে যায়। তবে ফুটবলের জন্য, মিডিয়ার জন্য একটা প্রতিদ্বন্দ্বিতা সবসময়ই দেখা যায়। কিন্তু আমার সঙ্গে তার সম্পর্ক সবসময় বেশ ভাল। কখনও এর ব্যতিক্রম হয়নি।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে জুভেন্টাসের কাছে হারের আগে স্প্যানিশ লা লিগায় দুর্বল কাদিজের বিপক্ষেও ১-২ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। রোনালদোর মতে কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে বার্সেলোনা। তবে তারা বার্সেলোনা হওয়ার কারণেই আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবে বলে মনে করেন রোনালদো।

তার ভাষ্য, ‘বার্সেলোনা এখন চ্যালেঞ্জিং সময় পার করছে। তবে তারা এখনও বার্সেলনাই আছে। সত্যি কথা বলতে, আমরা অনেক খুশি। আমরা জানতাম যে, এটা অসম্ভব একটা মিশন হতে যাচ্ছে। যেখানে আমরা বেশ ভাল খেলেছি। ম্যাচ জিততে শুরুতেই দুইটি গোল করা জরুরি ছিল। আমরা সেটি করে দেখিয়েছি।’

সূত্রঃ জাগোনিউজ