রামু সেনানিবাসের সদস্যরা ত্রাণনিয়ে লোহাগড়া-সাতকানিয়ার অসহায়দের ঘরে ঘরে

নীতিশ বড়ুয়া, রামুঃ
বিশ্বজুড়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করা মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় জনগণকে সচেতন রাখার অংশ হিসেবে পর্যটন নগরী কক্সবাজার জেলা ও বৃহত্তর চট্টগ্রাম জেলার চারটি উপজেলায় বেসামরিক প্রশাসনকে সহযোগিতার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় সেনাবাহিনী প্রধানের উদ্যোগে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশন ‘সকলের সুস্থতাই আমাদের কাম্য’ স্লোগানকে সামনে রেখে তাদের সার্বিক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

সোমবার (২৯ জুন) চট্টগ্রাম জেলার লোহাগড়া ও সাতকানিয়া উপজেলার দূর্গম এলাকায় কর্মহীন হতদরিদ্র ২৫০ পরিবারের নিকট ত্রাণ পৌঁছে দিয়েছে রামু সেনানিবাসের সেনাসদস্যরা। ১০ পদাতিক ডিভিশন, রামু সেনানিবাসের জিওসি’র সার্বিক নির্দেশনায় এ ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। আর্তমানবতার সেবায় প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী নিজ কাঁধে বহন করে অভাবগ্রস্ত, ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষদের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দিয়েছেন সেনা সদস্যরা।

জনগণের মাঝে করোনা বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি, নিজস্ব অর্থায়নে ত্রাণ বিতরণ, চিকিৎসা সহায়তা প্রদান, অন্তঃসত্ত্বা মায়েদের মাতৃ কালীন সেবা প্রদান, বিনামূল্যের বাজার, জীবাণুনাশক স্প্রে করাসহ বিভিন্ন জনসেবা মূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে চলেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশন।

সেনাবাহিনীর এই মানবিক উদ্যোগ অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে সক্ষম হয়েছে। এলাকাবাসী সেনাবাহিনীর এই ত্রাণ কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়েছে। এলাকার অসহায় মানুষ-জন সেনাবাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা ও দোয়া জানিয়েছে। সেনাবাহিনী সূত্রে জানা যায়, এ ধরনের জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম পরবর্তীতেও অব্যাহত থাকবে।