রামুতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

নিজস্ব সংবাদদাতা:
কক্সবাজার জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম নুরুল বশর চৌধুরীসহ আটক বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রামু উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার ২ আগষ্ট বিকালে রামু চৌমুহনীস্থ উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন, রামু উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব এসএম ফেরদৌস।

সভায় বক্তারা তীব্র প্রতিবাদের পাশাপাশি বিএনপি নেতা এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী ও তার ছোট ভাই আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ফিরোজ খান চৌধুরী, কুতুবদিয়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম কুতুবী, কুতুবদিয়া উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভুট্টো‘র কারামুক্তি দাবি করেন।

রামু উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবদলের আইন বিষয়ক সম্পাদক আবুল বশর বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক ফোরকান আহমদ, বিএনপি নেতা টিপু সুলতান চৌধুরী, ফতেখাঁরকুল বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক, চাকমারকুল ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফরিদুল আলম, বিএনপি নেতা শাহনুর উদ্দিন বাবু, ফয়েজ উদ্দিন রাশেদ, শেখ আবদুল্লাহ, ফয়সাল কাদের, উপজেলা যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক আবুল কাশেম, উপজেলা ছাত্রদল সভাপতি জহির আলম, রামু কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সালমান শাহ আবীর, রশিদনগর ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি মহি উদ্দিন, সম্পাদক বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা আবুল আলা, শাহজাহান, সরওয়ার হোসেন, আবদুল গনি, সাহাব উদ্দিন প্রমূখ।

সমাবেশের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন, জেলা যুবদলের সদস্য মো. জয়নাল আবেদীন।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের অভিযোগে এটিএম নুরুল বশর চৌধুরীসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন জেলা শ্রমিক লীগের নেতা মনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী মুকুল। ওই মামলায় আত্মসমর্পন করে জামিন প্রার্থনা করলে জেলা ও দায়রা জজ মীর শফিকুল ইসলাম জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে এটিএম নুরুল বশর চৌধুরীসহ ৪ জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এদিকে এটিএম নুরুল বশর চৌধুরীসহ ৪ জনকে কারাগারে প্রেরনের প্রতিবাদে এবং তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে ৩ দিনের কর্মসূচি ঘোষনা করেছে জেলা বিএনপি। কর্মসূচির আওতায় ২ আগষ্ট জেলার সকল উপজেলা ও পৌর শাখায় বিক্ষোভ মিছিল পালন করা কয়্ কাল ৩ আগষ্ট জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ এবং ৪ আগষ্ট জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে।