মুসলমান রমণী কিডনি দিচ্ছেন হিন্দু নারীকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
ভারতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য নজির স্থাপন করেছেন এক মুসলমান নারী। মহারাষ্ট্রের আরতি নামে এক হিন্দু রমণীকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দান করতে যাচ্ছেন উত্তর প্রদেশের শামসাদ বেগম। শনিবার টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, শামসাদ কিডনি দানের ইচ্ছাপত্রসহ যাবতীয় নথিপত্র ফতেহপুর জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে জমা দিয়েছেন। এখন সরকারের অঙ্গদান অনুমোদন কমিটি থেকে অনুমতি পেলেই পরবর্তী কার্যক্রম চালাবেন চিকিৎসকরা।

ফতেহপুর জেলার রারিবুজুর্গ গ্রামের বাসিন্দা শামসাদ বেগম জানান, তার ছোট বোনের বান্ধবী আরতির দুটি কিডনিই নষ্ট। আরতি বাস করেন মহারাষ্ট্রের পুনেতে। তাকে দেখতে গিয়েই নিজের একটি কিডনি দান করার সিদ্ধান্ত নেন শামসাদ বেগম।

তিনি বলেন, ‘মৃত্যুর মুখোমুখি একজন মানুষের শারীরিক যন্ত্রণা দেখে আমি আর থাকতে পারিনি। রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা করিয়ে দেখি আমার আর আরতির রক্তের গ্রুপ একই। এখন আমি কিডনি দেওয়ার জন্য পুরোপুরি তৈরি। সব সময় একজন মানুষের ধর্ম মানবতা হওয়া উচিত। এটা এক ছোট বোনের জন্য খুবই সাধারণ আত্মত্যাগ।’

১০ বছর আগে স্বামী মারা যাওয়ার পর একমাত্র মেয়েকে নিয়ে ফতেহপুরে বাবার বাড়িতে বাস করছেন শামসাদ। ভিন্ন ধর্মের এক নারীর প্রতি তার এমন আত্মত্যাগের গল্প ভারতীয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বেশ সাড়া ফেলেছে।