গর্জনিয়া বাজারের নর্দমা ভরাট : বাতাসে উৎকট দুর্গন্ধ

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
কক্সবাজারের প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী বাজার হচ্ছে রামু উপজেলার গর্জনিয়া বাজার। প্রত্যেক বছর এই বাজার থেকে সরকারি কোষাগারে জমা হয় সর্বোচ্চ রাজস্ব।

অথচ গর্জনিয়া বাজারের সমস্ত নর্দমা (ড্রেন) ভরাট হয়ে গেছে। এ কারণে এসব নর্দমা দিয়ে পানি সরতে পারছে না। পানির সঙ্গে নর্দমার আবর্জনা পচে বাতাসে উৎকট দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে এবং দূষিত হচ্ছে পরিবেশ।

গতকাল দেখা গেছে বাজারের ক্রেতারা নাকে কাপড় চেপে কাজ সারছেন। দুর্গন্ধে বাজারের ক্রেতাদের পথ চলা দায় হয়ে পড়েছে। তাঁদের অভিযোগ ডাসবিন না থাকায় ব্যবসায়ীরা যেখানে-সেখানে ময়লা ফেলছেন।

ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেন বলেন- নর্দমা আটকে যে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে, এতে করে দোকানে বসে থাকাও দায় হয়ে পড়েছে।

ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম বলেন- অতিদ্রুত সময়ের মধ্যে নর্দমা পরিস্কার না করলে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়বে। তিনি বাজারের এ ধরণের চরম গাফিলতির বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ ব্যাপারে বাজার ইজারাদার শাহ আলমের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

স্থানীয় সূত্র বলছে- বাজার ইজারাদার শাহ আলমের চরম অবহেলার কারণে দিন দিন শ্রীহীন হচ্ছে গর্জনিয়া বাজার। স্থানীয় কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু মো. ইসমাইল নোমানও সঠিকভাবে বাজার তদারকি করছেন না।

অভিযোগের বিষয়ে কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের বক্তব্যও পাওয়া যায়নি। তবে গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত পরিদর্শক মো. আনিছুর রহমান বলেন- বাজার ইজারাদারকে বার বার তাগাদা দেওয়ার পরও কর্নপাত করেনি।

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমা বলেন- নর্দমা ভরাটের বিষয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।