এসএলই রোগের কাছে হেরে গেলেন কাজল : আজ বাদ আসর জানাজা

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
সিস্টেমিক লুপাস ইরিথেমেটোসাস বা এসএলই নামক অটোইমিউন রোগে আক্রান্ত সৈয়দ ফখরুল ইসলাম ওরফে কাজল (৩৮) অবশেষে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তিনি কক্সবাজারের রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নের জুমছড়ি গ্রামের বাসিন্দা প্রয়াত মোস্তাক আহমদের ছেলে এবং গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছোট ভাই।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) দিবাগত রাত পৌনে তিনটার দিকে ঢাকার গ্রীন লাইফ হসপিটালের আইসিইউ বা ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফখরুল ইসলাম কাজল মারা যান। একই রাতে সংকটাপন্ন অবস্থায় আইসিইউ-তে তাঁকে দেখতে যান কক্সবাজার ৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। কাজল এক সন্তানের জনক।

চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলামের বরাত দিয়ে সংবাদকর্মী মো.নিজাম উদ্দিন ও গর্জনিয়া ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা তানজীদ রায়হান মুঠোফোনে জানান- সৈয়দ ফখরুল ইসলাম কাজল গত একসপ্তাহ আগে অসুস্থ অবস্থায় সৌদিআরব থেকে চিকিৎসা করতে দেশে আসেন। বুধবার চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় নেয়া হয়। চিকিৎসার এক সপ্তাহ হতে না হতেই সবাইকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে তিনি না ফেরার দেশে চলে গেলেন। মরহুমের নামাজে জানাজা বুধবার (২৬ জুন) আসরের নামাজের পর গর্জনিয়া জুমছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বলে তারা নিশ্চিত করেছেন।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন-সিস্টেমিক লুপাস ইরিথেমেটোসাস বা এসএলই নামক অটোইমিউন রোগে (শরীরের অ্যান্টিবডি দেহের কোষগুলোকে নিজের শরীরই ধ্বংস করে) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কমে যায়। এই রোগে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এসএলই দীর্ঘস্থায়ী স্বত:প্রতিরোধী রোগ যা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিশেষ করে চর্ম, গিরা, রক্ত, কিডনি এবং কেন্দ্রীয় স্নায়ু সিস্টেমকে আক্রান্ত করে।

এদিকে, সৈয়দ ফখরুল ইসলাম কাজলের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন- গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পাঁচ বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৌধুরী, রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল্লাহ মোহাম্মদ হাসান, গর্জনিয়ার আমেরিকা প্রবাসি মো.সাইফুল্লাহ চৌধুরী লেবু, পালর্স বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মো.সাইফুল ইসলাম চৌধুরী কলিম, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সহকারি কলেজ পরিদর্শক আবুল কাশেম মো.ফজলুল হক প্রমূখ।