এবার বাজেট ৫ লাখ কোটি টাকারও বেশি : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ
আগামী অর্থবছরের দেশের বাজেটের আকার সর্ম্পকে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের এবারের বাজেট হবে ৫ লাখ কোটি টাকার বেশি। আগামী ১৩ জুন জাতীয় সংসদে এ বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরা হবে।

বাংলাদেশের উন্নয়ন দেশব্যাপী করার জন্যই বছর বছর বাজেট বৃদ্ধি পাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন টানা তিন মেয়াদের সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা।

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ইফতারের আগে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান। দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের সম্মানে এই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

ইফতার মাহফিলে যারা যোগ দেন তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেসব দলের সঙ্গে নির্বাচনের আগে আমরা সংলাপ করেছিলাম, তাদের দাওয়াত দিয়েছি ইফতারে। অনেকের প্রতিনিধি এখানে এসেছেন। সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আপনারা এসে এই গণভবনের মাটিকে ধন্য করেছেন।

বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে নিজের লক্ষ্যের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশের বাজেট ছিল মাত্র ৬১ হাজার কোটি টাকা। কিন্তু এবার যে নতুন বাজেট আমরা দিতে যচ্ছি, ৫ লাখ কোটি টাকার উপরে আমাদের এই বাজেট হবে, ২ লাখ কোটি টাকার ওপর হবে উন্নয়ন বাজেট।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই বাংলাদেশে একসময় অনেকেই খাবার যোগাড় করতে পারতো না। মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ, মানুষ যেন সুন্দরমতো বাঁচতে পারে, মানুষের জীবন যেন অর্থবহ হয়, সেদিকে লক্ষ্য রেখেই জাতির পিতা এ দেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। জাতির পিতার সেই লক্ষ্য পূরণে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। এ দেশের একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না, কেউ বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না। প্রত্যেকটা মানুষ তার মৌলিক অধিকার পাবে। সংবিধানের আলোকে আমরা উন্নয়ন করে যাচ্ছি।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আমি মনে করি, ক্ষমতা আমার কাছে ভোগের বস্তু নয়, মানুষের সেবা করার সুযোগ। আমাদের লক্ষ্য স্বাধীনতার সুফল প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে যাবে পৌঁছে দেয়া। এই বাংলাদেশে হতদরিদ্র বলে কেউ থাকবে না। ইনশাল্লাহ, বাংলাদশকে আমরা দারিদ্র্যমুক্ত করবো।

এ সময় সবার কাছে দোয়া চেয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, মাদক-দুর্নীতিমুক্ত একটি দেশ হিসেবে গড়ে উঠতে পারে সেজন্য আপনারা সবাই দোয়া করবেন।

সূত্রঃ জাগোনিউজ