দৃষ্টি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্কঃ
নেত্রকোণার কলমাকান্দায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১২) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে কলমাকান্দা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। উপজেলার কৈলাটি ইউনিয়নের রঙশিংপুর গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে জানা গেছে, ১৯ জানুয়ারি (শনিবার) দুপুরে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ওই কিশোরীটিকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষণ করে পার্শ্ববর্তী পাইতপাড়া গ্রামের দিনমজুর সজল মিয়া (২৭)। এ সময় বাড়ির বাইরে থাকা কিশোরীর দাদী রাবিয়া খাতুন ঘরে ঢুকে বিষয়টি টের পেলে ধর্ষক সজল পালিয়ে যায়। সজল মিয়া পাইতপাড়া গ্রামের মৃত ইয়াদ ফকিরের ছেলে।

এ বিষয়ে কিশোরীর বাবা বলেন, আমি এক সময় দিনমজুরি করতাম। সজলও আমার সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করত। সেই সুবাদে সে আমাদের বাড়িতে আসা-যাওয়া করত। গত শনিবার দুপুরে আমরা কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে সে আমার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষক সজলের আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয় মাতব্বররা বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করায় থানায় অভিযোগ দিতে দেরি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে চেষ্টা করেও মীমাংসা করা যায়নি স্বীকার করে স্থানীয় ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন দুলাল জানান, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হতদরিদ্র পরিবারের একটা মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হোক তা কেউই চায়নি। তাই সজলের পরিবারের লোকজনকে নিয়ে মীমাংসার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার ওসি মো. মাজহারুল করিম জানান, এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্রঃ জাগোনিউজ