উপজেলা নির্বাচন: সর্বোচ্চ ৩ জনের নাম চেয়ে তৃণমূলে আ. লীগের চিঠি

অনলাইন ডেস্কঃ
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নের জন্য বিশেষ নির্দেশনা দিয়ে তৃণমূলকে চিঠি দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন-প্রত্যাশীদের মধ্যে সর্বোচ্চ তিন জনের নাম কেন্দ্রে পাঠাতে জেলা আওয়ামী লীগকে চিঠিতে বলা হয়েছে। এছাড়া, যেসব মহানগর, জেলা-উপজেলায় দলের নিজস্ব জমি রয়েছে, কার্যালয় নেই, সেখানে দলীয় খরচে কার্যালয় নির্মাণ করতে বলা হয়েছে। আর নিজস্ব জমি না থাকলে কেনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তৃণমূলকে। দলের দফতর সূত্র সারাবাংলাকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত চিঠিটি ডাকযোগে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ থেকে নৌকার প্রার্থীকে জয়ী করায় তৃণমূল নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

দলীয় সূত্র জানায়, কার্যালয় সংক্রান্ত তথ্য চেয়ে দলের সব জেলা, উপজেলা, মহানগর, থানা ও পৌর কমিটির কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, ‘দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী যেসব জেলা, মহানগর, উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামী লীগের নিজস্ব জমি রয়েছে কিন্তু কার্যালয় নেই, সেসব এলাকায় দলীয় খরচে কার্যালয় তৈরি করতে হবে। আর যেসব এলাকায় দলের নিজস্ব জমি নেই, সেখানে জমি কিনতে বলা হয়েছে। জেলা, উপজেলা, মহানগর, থানা ও পৌর আওয়ামী লীগের কার্যালয় আছে কি না, থাকলে জমির মালিকানাসহ ঠিকানা ও ফোন নম্বর দিতে বলা হয়েছে ওই চিঠি।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে দলের অস্থায়ী কার্যালয় থাকলে তার ঠিকানা ও ফোন নম্বর, অস্থায়ী কার্যালয় (ভাড়া নেওয়া) থাকলে তার বিবরণসহ স্থায়ী-অস্থায়ী কার্যালয়ের কম্পিউটার, ইন্টারনেট সংযোগ, ফ্যাক্স ও টেলিফোন সম্পর্কিত তথ্যও চাওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০তম জাতীয় সম্মেলনের পর আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সামনে একটি কমিউনিটি সেন্টারে এক মতবিনিময় সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের উপস্থিতিতে কোন কোন জেলা, উপজেলা/পৌর আওয়ামী লীগের নিজস্ব কার্যালয় আছে, কার্যালয়টি ভাড়া না সরকারি জমিতে বা কার্যালয় নেই, সেটা জানিয়ে একটি ফরম পূরণ করে দফতরে জমা দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার নিরঙ্কুশ জয়ের জন্য চিঠির শুরুতে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের অভিনন্দন জানানো হয়েছে। এরপর আগামী মার্চে দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও একইভাবে দল মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করে আনার আহ্বান জানানো হয়েছে ওই চিঠিতে। এ লক্ষ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে বর্ধিত সভা করে একক বা সর্বোচ্চ তিনজন প্রার্থীর নাম জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে পাঠাতে বলা বলেছে। জেলা আওয়ামী লীগকে সংশ্লিষ্ট জেলার সব উপজেলার প্রার্থীর তালিকা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ডাকযোগে বা সরাসরি কোনো মাধ্যমে পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, আগামী মার্চ থেকে কয়েক ধাপে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দলীয় প্রতীকে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে দলের মনোনয়ন পেতে শুরু হয়েছে লবিং-তদবির। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের ‘সুনজরে’ আসতে মনোনয়ন-প্রত্যাশীরা এখন ঢাকায় দৌড়ঝাঁপ করছেন।

সূত্রঃ সারাবাংলা
দলীয় সূত্র জানায়, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ কয়েকটি মানদণ্ডের ভিত্তিতে দলের মনোনয়ন দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।