ঘুমধুম ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে বিতর্কের ঝড়

শহিদুল ইসলাম, উখিয়া।
উখিয়ার নিকটবর্তী সীমান্ত ইউনিয়ন ঘুমধুমে আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনের শুরুতেই নানা বিতর্ক উঠছে। ভোটারদের তরফ থেকে কোন ধরনের অভিযোগ না থাকলেও পরাজিত প্রার্থীরা অনিয়ম কারচুপির অভিযোগ তুলছেন।

জামায়াত বিএনপির সমর্থিত লোকজনকে কমিটিতে অন্তর্ভূক্ত করে কাউন্সিল সম্পন্ন করা হয়েছে বলে অভিযোগে জানা গেছে।

গত ৮ এপ্রিল ঘুমধুম ৭ নং ওয়ার্ডের কমিটি গঠনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ বিতর্কের সূত্রপাত হয়। কাউন্সিলে পরাজিত প্রার্থী আবুল কালাম চৌধুরী জানান, একটি প্রভাবশালী রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রকারী মহলের ইশারায় কারচুপির মাধ্যমে পরাজয় নিশ্চিত করা হয়েছে। ভোটের ৯টি ব্যালট কিভাবে বাতিল হয় এটাও জনগণের জিজ্ঞাসা ?

এ কমিটি বাতিলের দাবী জানিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ ও বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের নিকট অভিযোগ প্রেরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী মোঃ ছৈয়দ নুর একই অভিযোগ করেছেন। তাকেও কারচুপির মাধ্যমে পরাজয় নিশ্চিত করা হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন। তাঁর অভিযোগ জামায়াত-বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর শাহাব উদ্দিন, নুরুল হাকিম, ছব্বির আহাম্মদ, মোঃ ইসলাম, মোঃ আলী, আমির হোসন, আব্দুল আমিন, সাদ্দাম হোসেন, খাইরুল বশর, আনোরুল ইসলাম, নুর হোসেন, আলী হোসেন ও রফিক উদ্দিনসহ একাধিক কাউন্সিলর বিএনপির তালিকাভূক্ত কর্মী বলে জানা গেছে।

ঘুমধুম ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি কাদির হোছন মেম্বার বলেন, কমিটি গঠনের কোন খবর বা আলোচনা আমাদের সাথে সমন্বয় করে করা হয়নি। তাই এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না।

৭নং ওয়ার্ড আওয়াীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল আলম বলেন, বিতর্কিত এ পকেট কমিটি গঠনের ঘটনায় ঘুমধুম আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেওয়ার পাশাপাশি কমিটি বাতিলের দাবী উঠছে।