সর্বশেষ সংবাদঃ

তারুণ্যের লেখালেখি

নিরাপত্তাহীন সড়ক

রুবেল বড়ুয়া: প্রণয় খুব দুরন্ত বালক। সদ্য অষ্টম শ্রেণিতে পা রেখেছে। বাবা দিনমজুর বিধায় সাইকেল কেনার সামর্থ্য নাই। মা থেকে কোন অজুহাত দেখিয়ে ১০ টাকা আদায় করল। উদ্দেশ্য সাইকেল ভাড়া নিয়ে সাইকেল চালাবে। দশ টাকা দিয়ে আধা ঘণ্টার ভাড়া চালিত সাইকেল নিয়ে বের হল রাস্তায়। কে জানত এটা তার শেষ সাইকেল চালানো! ঘাতক পিকআপ ( ডাম্পার) তার মুণ্ডকমস্তক চাকার তলায় ...

বিস্তারিত »

বন্ধুত্ব ও ভালবাসা

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী : কেউ কেউ পুরোহিতের কাছে যায়, কেউ কবিতার কাছে, আমি যাই বন্ধুর কাছে। বন্ধু কিংবা বন্ধুত্ব। স্কুলজীবনের শুরুর দিনগুলোতে অনেকেরই নতুন অভিজ্ঞতার নাম বন্ধুত্ব। পরিবারের চেনা জগৎটা যে এক লাফে অনেক দূর চলে গিয়েছিল সে তো বন্ধুদের হাত ধরেই। জীবনের পথে হাঁটতে হাঁটতে যে যেখানেই থাক না কেন, চলার পথে বন্ধুত্ব নামের এই পাথেয়টির তুলনা বোধ হয় ...

বিস্তারিত »

নিঃসঙ্গতা পাঠের অনুভূতি: মায়েস্ত্রো মার্কেজ

উপল বড়ুয়া: “একদিন সকালে অস্বস্তিকর স্বপ্ন দেখে জেগে উঠে গ্রেগর সামসা দেখতে পায় যে নিজের বিছানায় সে একটা আরশোলায় রূপান্তরিত হয়েছে।” [ মেটামরফসিস/ ফানস্ কাফকা] “বহু বছর পর, ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দাঁড়িয়ে, কর্নেল অরেলিয়ানো বুয়েন্দিয়ার মনে পড়ে যাবে সেই দূর বিকেলের কথা, যেদিন তাকে সঙ্গে নিয়ে বরফ আবিষ্কার করেছিল তার বাবা।” [নিঃসঙ্গতার একশ বছর/ গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজ] গ্রেগর সামসার জীবনী ...

বিস্তারিত »

‘প্রাণের কলেজে আবার ফিরে যাওয়া’

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী : দূর-দুরান্ত থেকে হাজারো নবীন-প্রবীণ প্রাণ এসে মিলিত হয়েছে একজায়গায়। আনন্দ-উল্লাশ, হৈ-হুল্লোড়ে মুখরিত হয়ে উঠেছে চারপাশ। দীর্ঘদিনের পুরনো বন্ধুকে দেখে হৃদয়ের সবটুকু নির্যাস ভালোবাসা দিয়ে জড়িয়ে ধরছে একে-অপরকে। এ যেন স্মৃতির কলেজে আনন্দের বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস। বলছে, বড় আনন্দের ছিলা সেইসব দিনগুলি। আহ! আবার যদি পেতাম ফিরে। শনিবার (৪ফেব্রুয়ারি) এ দৃশ্য দেখা যায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি হাজী এম.এ.কালাম ডিগ্রি ...

বিস্তারিত »

ভালোবাসার বেলকনিতে

নঈম আল ইস্পাহান: আমি তাকে প্রথমবার দেখেছিলাম এক কাক ডাকা গ্রীষ্মের দুপুরে।স্কুল ড্রেস পরা এক শান্তশিষ্ট,কোমল চেহারার মেয়ে।প্রথম দেখাতে তাকে আমার তেমন একটা ভালো লাগেনি।মনে হয়েছিল,ইশ!আরেকটু সুন্দরী হলে কি এমন হত?আরেকটু হ্যাংলা হলে কি ভালো হতনা?আমার মনে হয়েছিল এই মেয়েকে ভালোবাসা যাবেনা।আমার মনের সাথে একটু ও মিল নেই। কিন্তু,দিন যত যায় আমার বুকের ভেতর তার জন্য এক ধরণের হাহাকার বাড়তে ...

বিস্তারিত »

শুভ জন্মদিন “বন্ধু”

নঈম আল ইস্পাহান: আমি আর ইমু।কখনো আমাদের তৃতীয় কাউকে প্রয়োজন হয়নি।স্কুল ছুটি হলেই দুজন টু,টু করতে বের হয়ে যেতাম।কখনো সন্ধ্যার আগ পর্যন্ত বাড়ি ফিরতাম না।সারাক্ষণ গলায়,গলায় হাত থাকত দুজনের।দস্যিপনা,ক্রিকেট খেলা,পাহাড়ে ঘুরতে যাওয়া,বিভিন্ন বলিউড নায়িকার রুপের গুণকীর্তন করা একটা অভ্যাসে পরিণত হয়েছিল।ক্যাটরিনা সুন্দর,প্রিয়াঙ্কা সুইট,কারিনা ফর্সা এসবই বেশি অালোচনা হত।মাঝে,মাঝে ক্যাটরিনাকে বিশ্রি বললে ইমু রেগে যেত।সেসময় ক্যাটরিনার তুমুল জনপ্রিয়তা ছিল।ইমু ক্যাটরিনাকে মনে ...

বিস্তারিত »

ছড়াপুত্রের ৮০তম জন্মদিন: তৃপ্ত হওয়া মানে তো শেষ হয়ে যাওয়া : সুকুমার বড়ুয়া

সুকুমার বড়ুয়া বাংলাদেশের নন্দিত ছড়াশিল্পী। জন্ম ১৯৩৮ সালের ৫ জানুয়ারি। তার ছন্দকুশলতা, ভাবনার স্বকীয়তা এবং বিষয়ের চমক পাঠকের মনে মুহূর্তেই আনন্দ সঞ্চার করে। পাগলা ঘোড়া, ভিজে বিড়াল, ঠুসঠাস, ছড়া সমগ্র, লেজ আবিষ্কার, মজার পড়া ১০০ ছড়া ছাড়াও প্রায় ত্রিশটি ছড়াগ্রন্থের রচয়িতা সুকুমার বড়ুয়া বাংলা একাডেমী, শিশু একাডেমী, অগ্রনী শিশুসাহিত্য পুরস্কারসহ নানা সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। আজ ৫ জানুয়ারি তার ৮০তম জন্মদিন। ...

বিস্তারিত »

আশা-জাগানিয়া বিজয়ের দিন আজ

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী : বাঙালি জাতির জীবনে আজ এক আনন্দের দিন। এমনি এক দিনের প্রতীক্ষায় কেটেছে বাঙালির হাজারো বছর। বহু কাঙ্খিত সেই দিনটির দেখা মিলেছিল ইতিহাসের পাতায় রক্তিম অক্ষরে লেখা এক সংগ্রামের শেষে ১৯৭১ সালে, ১৬ ডিসেম্বর। ঢাকার ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) ৪৫ বছর আগের এদিনে বর্বর পাকিস্তানি বাহিনী হাতের অস্ত্র ফেলে মাথা নিচু করে দাঁড়িয়েছিল বিজয়ী বীর ...

বিস্তারিত »

বিজয়ের কিছু কথা

রুবেল বড়ুয়া: ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীকে পরাস্ত করে বিজয় অর্জন করেছিল বাংলাদেশ।যেসব কীর্তিমান মহানায়কগণ বিজয় অর্জন করতে প্রত্যেক্ষ ও সংগ্রাম করছেন, সেইসব মহানায়কগণের প্রতি প্রথমে জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা। ১৬ই ডিসেম্বর, মহান বিজয় দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন রাষ্ট্র ভূমিষ্ট হয়। বাংলাদেশের এই বিজয় ছিনিয়ে আনতে দীর্ঘ নয় মাস পাক হানাদার বাহিনীর ...

বিস্তারিত »

সভ্যতায় ঘুনেপোঁকা ধরেছে

তৌহিদুল ইসলাম রবিন: ‘সৎ সঙ্গে স্বর্গবাস,অসৎ সঙ্গে সর্বনাশ’-কথাটা কতটুকু যুক্তিসংগত? ছোট বেলা থেকেই নিজের পরিবার,সমাজ এবং সকলের মুখে এই কথাটা শুনেই বড় হতে হয় অনেককে। আমি মনে করি মানুষের মানুসিকতার উপর প্রচন্ড প্রভাব ফেলছে এই লাইন দু’টি। একজন অসৎ মানুষকে তোমার “সঙ্গ” দিয়ে ভালো করার চেষ্টা করো-এমন কথা কোথাও লেখা আছে কিনা বা কেউ বলে কিনা আমার জানা নেই। সমাজ ...

বিস্তারিত »