নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড় থেকে ৪ টি অস্ত্র উদ্ধার

আব্দুল হামিদ, বাইশারী:
নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড় থেকে ৪ টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে ৩১ বিজিবি। বিজিবির দাবি নাইক্ষ্যংছড়ির গহীন পাহাড়ে অবস্থানকারী স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অপহরণকাজে এসব অস্ত্র ব্যবহার করত । গত বুধবার ভোর সকালে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বিজিবি’র এ দলটি উপজেলার দৌছড়ি ইউনিয়নের কুলাচি- কুরিক্ষ্যং সড়কের কুরিক্ষ্যং গ্রামের অদূরে সন্ত্রাসীদের একটি অস্থায়ী আস্তানা থেকে এ অস্ত্র গুলো উদ্ধার করে।

বিজিবি সূত্র জানায়, নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ও দৌছড়ি ইউনিয়ন এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরে পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা চাদাঁবাজি, খুন, অপহরণ ও সন্ত্রাসীকর্মকান্ড করে যাচ্ছে খবর আসে দিব্য তাদের কাছে ।

২৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোররাতে অপহরণ করা ৩ ব্যক্তিকে ছেড়ে দেয়া সহ আরো বেশ লোকজনকে এ ভাবে অপহরণ করে আসছিল এ দলটি। এ অবস্থায় নাইক্ষ্যংছড়িস্থ ৩১ বিজিবি অধিনায়ক এ পাহাড়ি এলাকায় কৌশলে অভিযান পরিচালনা করা শুরু করে অপহরণকারীদের আটকে।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৬ অক্টোবর বুধবার ভোর রাতে গোপনে খবর পেয়ে সুবেদার বাকী বিল্লাহ’র নের্তৃত্বে দলটি অভিযান চালায় কুরিক্ষ্যং এর এলাকায়। অভিযানের খবর আঁচ করতে পেরে সন্ত্রাসীরা দ্রুত গহীন পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। আর বিজিবি’র এ দলটি দেশীয় তৈরী এ বন্দুক গুলো উদ্ধার করে। সুবেদার বাকী বিল্লাহ এ প্রতিবেদককে জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বাইশারী পাহাড় থেকে ৩ লাখ টাকায় মূক্তি পাওয়া ৩ রাবার শ্রমিকদের অপহরনকারী স্বশ্বস্ত্র পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা বিজিবি-পুলিশের তাড়া খেয়ে চলে যাওয়ার পর এ অস্ত্রগুলো উদ্ধার করে তারা।

এ বিষয়ে ৩১ বিজিবি অধিনায়ক লে: কর্ণেল আনোয়ারুল আজিম জানান, পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের আটকে ৩১ বিজিবি নানা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। আর এর উপর ভিত্তি করেই তারা অভিযান চালাচ্ছে ক’দিন ধরে। যাতে করে এলাকার মানুষ পাহাড়ে শান্তিতে ঘুমাতে পারে।