ক্ষুধা সূচকে এবার ১৭ ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ

বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে এবার ১৭ ধাপ পিছিয়ে ৯০ তম অবস্থানে বাংলাদেশ। গত বছর এ সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৭৩তম।

মঙ্গলবার ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনিস্টিটিউট তাদের ওয়েবসাইটে এ সূচক প্রকাশ করেছে।খবর রাইজিংবিডির।

বিশ্বের ১১৮টি দেশের ওপর ভিত্তি করে এবারের ক্ষুধা সূচক নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সূচক নির্ধারণে চারটি মূল নির্দেশক ব্যবহার করা হয়েছে । এগুলো হলো— অপুষ্টি, শিশুর উচ্চতার তুলনায় ওজনের হ্রাস, বয়সের তুলনায় কম উচ্চতা এবং শিশু মৃত্যুহার ।

এসব নির্দেশকে ১০০ পয়েন্টে সূচক নির্ধারণ করা হয়। যে দেশ এক্ষেত্রে যত কম নম্বর অর্জন করবে, সেখানকার শিশুর অবস্থা তত ভালো; আর যে দেশ ১০০ নম্বর অর্জন করবে, তাদের অবস্থা তত খারাপ।

সূচক অনুযায়ী, ৫০ এর বেশি চরম সর্তক অবস্থা, ৩৫ থেকে ৪৯ দশমিক ৯ সতর্ক অবস্থা, ২০ থেকে ৩৪ দশমিক ৯ ভয়াবহ, ১০ থেকে ১৯ দশমিক ৯ মধ্যম মাত্রার এবং ৯ দশমিক ৯ এর নিচে নিম্ম ক্ষুধার হার।

২০১৬ সালের যে সূচক প্রকাশ করা হয়েছে তাতে বাংলাদেশ পেয়েছে ২৭ দশমিক ১ পয়েন্ট। অর্থাৎ সূচকে এখনো বাংলাদেশ ভয়াবহ ক্ষুধা কবলিত দেশগুলোর তালিকায় রয়েছে।

এ দেশে মোট জনগোষ্ঠীর ১৬ দশমিক ৪ শতাংশ অপুষ্টিতে ভুগছে। পাঁচ বছরের নিচে থাকা শিশুদের মধ্যে ১৪ দশমিক ৩ শতাংশের উচ্চতার তুলনায় ওজন কম, একই বয়সের শিশুদের মধ্যে ৩৬ দশমিক ৪ শতাংশের আবার তুলনামুলক উচ্চতা কম।

এছাড়া পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশু মৃত্যুর হার ৩ দশমিক ৮ শতাংশ।