প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: লিখিত পরীক্ষা ২৯ অক্টোবর

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির জন্য শুধু মুক্তিযোদ্ধা কোটায় সহকারী শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২৯ অক্টোবর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।খবর বিডিনিউজের।

তিন পার্বত্য জেলা ছাড়া দেশের সবগুলো জেলায় দুপুর ৩টা থেকে ৪টা ২০ মিনিট পর্যন্ত একযোগে পরীক্ষা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ২১ অক্টোবর থেকে প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএস পাঠানো হবে এবং আগামী ২২ অক্টোবর থেকে তারা প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

“পরীক্ষার্থীকে প্রবেশপত্র ছাড়া বই, উত্তরপত্র, নোট বা অন্য কোনো কাগজপত্র, ক্যালকুলেটর, মোবাইল ফোন, ভ্যানেটি ব্যাগ, পার্স, ইলেক্ট্রনিক্স ঘড়ি বা যে কোনো ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস পরীক্ষাকেন্দ্রে সঙ্গে রাখতে দেওয়া হবে না।”

কোনো পরীক্ষার্থী এসব নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করলে তাকে তাৎক্ষণিক বহিষ্কার করা হবে।

প্রার্থীরা http://dpe.teletalk.com.bd ওয়েবসাইট থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

ওএমআর শীট পূরণের নির্দেশাবলী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্য তথ্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে www.dpe.gov.bd পাওয়া যাবে।

সরকারি প্রাথমিকে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৩ হাজার ৪৪০ জনকে শূন্য পদে সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিতে গত ২৪ মে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

৩০ মে থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করেন।