পাকিস্তানের পাশে চীন, রাশিয়ার সঙ্গে মহড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের আগ্রাসন হলে পাশে থাকবে চীন।

এদিকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের (বর্তমান রাশিয়া) স্নায়ুযুদ্ধকালীন শত্রু পাকিস্তানের সঙ্গে সামরিক মহড়া শুরু করছে রাশিয়া। বিষয়টিকে গভীর পর্যবেক্ষণে রেখেছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র। খবর রাইজিংবিডির।

এদিকে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্ত নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করার মধ্যে চীন আস্থার বার্তা নিয়ে দাঁড়াল পাকিস্তানের পাশে। এ ছাড়া কাশ্মীর ইস্যুতেও পাকিস্তানকে সমর্থন করার আশ্বাস দিয়েছে তারা।

লাহোরে চীনের কনসাল জেনারেল ইউ বোরেনকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানের পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এক প্রেস রিলিজে এ কথা বলা হয়েছে।

পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরে শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সঙ্গে বৈঠকের সময় চীনের হয়ে কনসাল জেনারেল বোরেন পাকিস্তানকে অকুণ্ঠ সমর্থন দেওয়ার কথা বলেন।

প্রেস রিলিজে আরো বলা হয়, বোরেন বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে আমরা পাকিস্তানের পাশে আছি এবং থাকব… নিরস্ত্র কাশ্মীরিদের দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে এখনো কোনো বিচার নেই… কাশ্মীর ইস্যুর সমাধান হওয়া উচিত কাশ্মীরিদের ইচ্ছানুযায়ী

রাশিয়ার স্থলবাহিনীর একটি দল শুক্রবার পাকিস্তানে এসে পৌঁছেছে। ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত দুই দেশের যৌথ সামরিক মহড়া হবে। পাকিস্তানের আর্মি মিডিয়া উইংয়ের মুখপাত্র ওয়াসিম সালিম বাজা এ তথ্য জানিয়েছেন।

ভারত এ বিষয়ে নিবিড় পর্যবেক্ষণ করছে- এমন কথা বলার পর মধ্যরাতে নয়াদিল্লির রাশিয়া দূতাবাসের এক প্রেস রিলিজে বলা হয়, রাশিয়া-পাকিস্তানের সন্ত্রাসবিরোধী যৌথ সামরিক মহড়া আজাদ কাশ্মীরের মতো স্পর্শকাতর অঞ্চলে বা গিলগিত-বালতিস্তানের মতো সমস্যাপূর্ণ এলাকায় হবে না। মহড়ার একমাত্র ভ্যেনু চেরাট।