জুলাইয়ে হতে পারে এসএসসি পরীক্ষা

শিক্ষা ডেস্ক :
বন্যার কারণে স্থগিত থাকা এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আগামী জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহে শুরু হতে পারে। ঈদুল আজহার পরপরই নতুন করে এসএসসি-সমমানের পরীক্ষার রুটিন প্রকাশের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড।

বুধবার (২২ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ডের আহ্বায়ক ও ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জাগো নিউজকে বলেন, বন্যার কারণে পিছিয়ে যাওয়া এসএসসি পরীক্ষার আয়োজন কবে থেকে করা যায় সে বিষয়ে চিন্তাভাবনা চলছে। এ বিষয়ে আজ (২২ জুন) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সভা শেষে শিক্ষা সচিব কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। সে মোতাবেক আমরা প্রস্তুতি শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

কবে থেকে এ পরীক্ষা শুরু হবে জানতে চাইলে অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, আমরা বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। পানি কমে গেলেই পরীক্ষা শুরু হবে। ঈদের ছুটির পরপরই নতুন করে রুটিন প্রকাশ করা হবে। জুলাই থেকে এ পরীক্ষা শুরু করা হতে পারে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক জাগো নিউজকে বলেন, ঈদের পর এসএসসি পরীক্ষা শুরু হতে পারে। এ বিষয়ে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ডের আহ্বায়কের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তাকে কিছু দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তবে সভায় উপস্থিত এক কর্মকর্তা জানান, ঈদের আগেই বন্যার পানি নেমে যাবে। আগামী ১৭ জুলাই ঈদের ছুটি শেষ হবে। এর এক বা দুদিন পর এসএসসি-সমমানের পরীক্ষার নতুন রুটিন প্রকাশ করা হবে। রুটিন প্রকাশের সাতদিন পর পরীক্ষা শুরু হবে।

জানা গেছে, চলতি বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবে। সাধারণ ৯টি বোর্ডের অধীনে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে। এর বাইরে দাখিলে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন এবং কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে এক লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে।

সূত্র : জাগোনিউজ