শ্রীলঙ্কায় অনাস্থা প্রস্তাব আনার হুমকি বিরোধীদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
সরকারের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাব আনার হুমকি দিয়েছে শ্রীলঙ্কার মূল বিরোধী দল। শুক্রবার পার্লামেন্টে সামাগি জানা বালাওয়েগয়া পার্টির প্রধান সাজিথ প্রেমাদাসা এই হুমকি দেন। তিনি বলেন, সরকার যদি অর্থনৈতিক সংকট নিরসন এবং শাসনের উন্নতি না ঘটায় তাহলে পার্লামেন্টে সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হবে।

ঋণ জর্জরিত শ্রীলঙ্কার হাতে আমদানি করার মতো অর্থ নেই। ফলে জ্বালানি, বিদ্যুৎ, খাবার এবং ওষুধের সংকট ক্রমাগত বাড়ছে। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে বিরতিহীনভাবে রাজপথে বিক্ষোভ চলছে। পাঁচ দিন জরুরি অবস্থা এবং দুই দিন কারফিউ জারি করেও বিক্ষোভ থামানো যায়নি।

গত সপ্তাহে পুরো মন্ত্রিসভা পদত্যাগের পর অল্প কয়েক জন মন্ত্রী নিয়ে প্রশাসন পরিচালনা করছেন প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে। বিরোধী দলগুলোকে সরকারে যোগ দিতে আহ্বান জানানো হলেও তাতে সাড়া মেলেনি।

ক্ষমতাসীন জোটের ৪১ আইনপ্রণেতা জোট ছেড়ে বেরিয়ে স্বাধীনভাবে কার্যক্রম চালানোর ঘোষণা দেওয়ার পরও সরকার দাবি করেছে, পার্লামেন্টে তারা এখনও সংখ্যাগরিষ্ঠ।

পার্লামেন্টে সামাগি জানা বালাওয়েগয়া পার্টির প্রধান সাজিথ প্রেমাদাসা বলেন, সরকারের অর্থনৈতিক সংকট স্বীকার করা এবং শাসনে উন্নতি ঘটাতে কাজ করা প্রয়োজন। না হলে আমরা সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের দিকে যাবো।’ তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কাকে অবশ্যই ঋণ খেলাফি হওয়া এড়াতে হবে। সরকারকে অবশ্যই ঋণ বাতিলে কাজ করতে হবে এবং ঋণ পুনর্গঠন প্রক্রিয়া শুরু করতে আর্থিক উপদেষ্টা নিয়োগ করতে হবে।’

শুক্রবার সকালে পার্লামেন্টের সদস্যরা পরস্পরের বিঘ্ন ঘটানোয় দুইবার অধিবেশন প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। সাময়িকভাবে দুই পার্লামেন্ট সদস্যকে বহিষ্কারও করা হয়।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন