রাতে মোটরসাইকেল চালাতে যা মানা জরুরি

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ
মোটরসাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে সবাইকেই বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে হয়। না হলে দুই চাকার এই যান মুহূর্তেই দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়ে কেড়ে নিতে পারে আরোহীর প্রাণ। দ্রুত এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাওয়ার সহজলভ্য এক যান হলো মোটরসাইকেল।

তবে এটি নিয়ম-কানুন মেনে না চালালে যে কোনো মুহূর্তেই বিপদে পড়তে পারেন। বিশেষ করে রাতে মোটরসাইকেল চালানোর ক্ষেত্রে কয়েকটি নিয়ম অবশ্যই মানা জরুরি। না হলে ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক করণীয়-

>> রাতে মোটরসাইকেল চালানোর সময় গাড়ির হেডলাইট জ্বালাতে ভুলবেন না। এতে গাড়ির চালকেরা হেডলাইটের কারণেই দূর থেকে আপনার গাড়ি দেখতে পারবে ও সতর্ক থাকবে।

>> নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবনের পর গাড়ি চালানো মারাত্মক দুর্ঘটনার কারণ হতে পারে। তাই এমন অবস্থায় মোটেও বাইক চালাবেন না।

>> রাতে রাস্তা ফাঁকা পেয়ে অনেকেই মোটরসাইকেলের স্পিড বাড়িয়ে দেন। ফলে দুর্ঘটনা হতে পারে মুহূর্তেই। রাতে হাইওয়েতে যত কম স্পিডে গাড়ি চালাবেন ততই নিরাপদ থাকবেন।

>> সব সময় লুকিং গ্লাসের সাহায্যে পেছনের গাড়িগুলোর দিকে নজর রাখুন। হঠাৎ করেই ব্রেক করলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

>> রাতে রাস্তায় বিভিন্ন জীবজন্তু চলাফেরা করতে পারে। অনেকে সময় অন্ধকারে তাদেরকে দেখা যায় না। তাই সতর্ক থাকতে হবে। এমন সময় যদি আপনি হঠাৎ করেই ব্রেক করেন তাহলে দুর্ঘটনা ঘটবে।

>> আপনি যদি চশমা পরেন, তাহলে অবশ্যই রাতে মোটরসাইকেল চালানোর সময় অ্যান্টি রিফ্লেকটিভ গ্লাস ব্যবহার করুন। এতে দূরের কিছু দেখতে অসুবিধা হবে না আবার বেশি আলোতেও সমস্যা হবে না।

>> রাতে মোটরবাইক চালানোর সময় অপরিচিত কেউ ডাকলে কিংবা বাইক থামাতে বললে কিন্তু শুনবেন না। এতে বিপদ ঘটতে পারে।

>> একটানা মোটরসাইকেল চালাবেন না কখনো। রাতে লং ড্রাইভে বের হলে অবশ্যই সঙ্গে কাউকে নেবেন। শরীরের বেশি ক্লান্ত লাগলে কোনো দোকানের সামনে কিংবা বাজারের কাছে থেমে বিশ্রাম নিন।

সূত্রঃ জাগোনিউজ