রাতে ঘুমানোর আগে কলা খাওয়ার উপকারিতা

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ
ঘুম আসছে না? তবে রাতে কলা খেয়ে দেখতে পারেন। সারাদিনের কর্মব্যস্ততা শেষ করে ঘুমানো সময় এসেছে। প্রচণ্ড ক্লান্ত, মনে হচ্ছে বিছানা পিঠ ঠেকানোর সঙ্গে সঙ্গেই ঘুমে ঢলে পড়বেন। কিন্তু যেমন ভাবনা তেমন কাজ হলো না।

ওয়েল অ্যান্ড গুড ওয়েবসাইটের ইউটিউব সিরিজ ‘ইউ ভারসেস ফুড’য়ের এক পর্বে যুক্তরাষ্ট্রের সনদস্বীকৃত পুষ্টিবিদ ট্রেসি লকউড বেকারম্যান দ্রুত ঘুম আসার জন্য কলা ও বাদামের মাখন বা ‘পিনাট বাটার’কে শক্তভাবে সমর্থন দেন।

তিনি বলেন, “রাতে খাওয়ার আগে মনে রাখতে হবে যা খাবেন এবং ঘুমানোর যত আগে তা খাবেন দুটোই ঘুম ও হজমের ওপর বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে। ঘুমানোর আগে খাবার হজম না হলে শরীর ঘুম নয়, হজমের প্রতিই বেশি মনযোগ দেবে। এসময় রক্তে শর্করার মাত্রা বেশি থাকবে, তা আপনাকে জাগিয়ে রাখবে। খাবারের প্রতি আপনার শরীর কতটুকু সংবেদনশীল সেটার ওপরেও ঘুম নির্ভরশীল। এজন্য প্রক্রিয়াজাত চিনি ও কার্বোহাইড্রেট এসময় একদম খাওয়া চলবে না।”

“এখন প্রচণ্ড মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে যাওয়ার পর রাতে মস্তিষ্ক ‘কমফোর্ট ফুড’ চাইতে পারে। যেমন- চকলেট কুকিজ। কারণ এই খাবারগুলো মস্তিষ্কে ‘ডোপামিন’ যোগাবে। তবে সেসময় আদর্শ খাবার হবে কলা ও বাদামের মাখন।”

“কলায় প্রচুর পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম থাকে, যা পেশিকে শিথিল করে। অপরদিকে বাদামের মাখনে থাকে ‘ট্রিপ্টোফেন’। এটি একটি ‘অ্যামিনো অ্যাসিড’ যা মস্তিষ্কে পৌঁছে ‘সেরোটনিন’য়ে পরিণত হয়।”

কলা আর বাদামের মিশ্রণ অত্যন্ত সুস্বাদুও বটে। আর একসঙ্গে খেলে কলায় থাকা কার্বোহাইড্রেট সরবরাহ বাড়ায় ‘ট্রিপ্টোফান’য়ের। ফলে ঘুম আসে সহজে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ