রামুতে ইউসা-হেল্প কক্সবাজার এর উদ্যোগে দেয়ালিখা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরন সম্পন্ন

রামু প্রতিনিধিঃ
রামুতে হেল্প কক্সবাজার ও ইয়ুথ অরগানাইজেশান ফর সোশ্যাল এ্যাকশান (ইউসা) এর যৌথ উদ্যোগে “চট্টগ্রাম বিভাগের জনগণের সামাজিক সম্পৃক্ততার মাধ্যমে উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধ প্রকল্প ” শীর্ষক দেওয়ালিখা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। ইপসা-সিভিক কনসোর্টিয়াম এর সার্বিক সহযোগিতায় রবিবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) বেলা আড়াইটায় রামু চৌমুহনী সংলগ্ন ইয়ুথ অরগানাইজেশান ফর সোশ্যাল এ্যাকশান (ইউসা) নিজস্ব মিলনায়তনে এ পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গত ২২ ফেব্রæয়ারি (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার ‘প্রেজেন্টেশন ও দেয়ালিখা’ গ্রহণ করা হয়। রবিবার প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা ও পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।
প্রতিযোগিতায় উগ্রবাদ ও সহিংসতা, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, লিঙ্গ বৈষম্য, কোভিড-১৯ বিষয়ে পাঁচটি দলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও এলাকা থেকে আগত শিক্ষার্থী ও ইয়ুথরা অংশগ্রহণ করে। তন্মধ্যে উগ্রবাদ ও সহিংসতা বিষয়ে অংশগ্রহনকারি দল ১ম স্থান অর্জন করেন। প্রতিযোগিতায় ২য় ও ৩য় স্থান অর্জন করে যথাক্রমে যৌতুক ও বাল্যবিবাহ বিষয়ে অংশগ্রহণকারি দল।

সমাপনী দিনে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- দৈনিক দৈনন্দিন এর বার্তা প্রধান ইরফান উল হাসান। ইয়ুথ অরগানাইজেশান ফর সোশ্যাল এ্যাকশান (ইউসা)’র সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইব্রাহীম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- হেল্প কক্সবাজারের ফিল্ড অফিসার সাইফুল ইসলাম ও ট্রেইনার বোরহান উদ্দিন ইমরোজ। অতিথিবৃন্দ বলেন- উগ্রবাদ-সহিংসতা দেশ সমাজ ও পরিবারের জন্য একটি মহামারী ব্যাধি। তাই এখান থেকে পরিত্রাণ পেতে যুবকদের এগিয়ে আসতে হবে। এ জন্য নিজেদের সচেতন হওয়ার পাশাপাশি পরিবার-পরিজন, সহপাঠীদেরও সচেতন করতে হবে। অতিথিবৃন্দ আরও বলেন- করোনা মহামারী দূরীকরণে ইয়ুথদের ভূমিকায় বেশি। এ ধরনের মানবিক ও জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ডে ইয়ুথদের আরও সম্পৃক্ত হতে হবে।

অনুষ্ঠানে অডিও কনফারেন্সে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন- হেল্প কক্সবাজারের প্রজেক্ট ম্যানেজার সাদেকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ দেয়ালিখা এবং চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী দলের হাতে পুরুষ্কার এবং মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন। ফারহানা সেলিম সামিয়ার সঞ্চালনায় পুরুষ্কার বিতরন অনুষ্ঠানে সমন্বয়কারি ছিলেন- ফাহিমা ইসলাম আরাবি ও তৌফিকুল ইসলাম।