একাদশে ভর্তি: চতুর্থ ধাপে আবেদন শুরু ২৬ ফেব্রুয়ারি

শিক্ষা ডেস্কঃ
২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে চতুর্থ ধাপে আবেদনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে এ অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে চলবে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক তপন কুমার সরকারের সই করা এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে অনলাইন মাধ্যমে ভর্তিতে চতুর্থ ধাপে (সর্বশেষ) আবেদন গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আবেদন পদ্ধতি শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের কলেজে বিদ্যমান আসন সংখ্যা দেখে সর্বনিম্ন ১০টি কলেজে আবেদন করতে হবে।

যারা আবেদন করতে পারবেন
যেসব শিক্ষার্থী আগে আবেদন করেননি বা আবেদন করে পছন্দের কলেজ পাননি। যারা চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন কিন্তু কোনো কারণে কলেজে ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভর্তি হতে পারেননি কিংবা নিশ্চায়ন করতে পারেননি এবং উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা চতুর্থ ধাপে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদন প্রক্রিয়া সময়সীমা
চতুর্থ ধাপে অনলাইন আবেদন আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে। আবেদন যাচাই-বাছাই করা হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি। এ ধাপের আবেদনের ফল ১ মার্চ প্রকাশ করা হবে। শিক্ষার্থীরা সিলেকশন নিশ্চায়ন ও কলেজে ভর্তির ক্ষেত্রে ২ মার্চ থেকে শুরু করে পরদিন ৩ মার্চ পর্যন্ত সুযোগ পাবেন। এ বছর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নীতিমালা অনুসরণ করে অনলাইন ছাড়া মেন্যুয়ালি কেউ কলেজে গিয়ে ভর্তি হতে পারবেন না। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের পুনরায় অবহিত করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাস করেও প্রায় ৫০ হাজার শিক্ষার্থী পছন্দের কলেজে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থী রয়েছেন এক হাজার ৩০০ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা বোর্ডের ৫৪৪ জন। পছন্দের কলেজে আবেদন করে ভর্তির জন্য তৃতীয় তথা শেষ ধাপেও তারা মনোনয়ন পাননি।

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য সারাদেশে ১৫ লাখ ছয় হাজার ৭৬৩ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেন। এরমধ্যে শেষধাপ পর্যন্ত ১৪ লাখ ৬৩ হাজার ৪৩৬ জন শিক্ষার্থী পছন্দের কলেজে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হন।

গত ৮ জানুয়ারি একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের অনলাইন ভর্তির আবেদন শুরু হয়। গত ১০ ডিসেম্বর দ্বিতীয় ধাপে এবং ১৫ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় তথা শেষ ধাপে ভর্তির ফল প্রকাশ করা হয়।

সূত্রঃ জাগোনিউজ