এইচএসসির ফল প্রকাশ রোববার

অনলাইন ডেস্কঃ
মহামারীর মধ্যে যে ১৪ লাখ শিক্ষার্থী এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসেছিল, তাদের উৎকণ্ঠার অবসান ঘটতে যাচ্ছে আর তিন দিন পর। আগামী রোববার এই ফল প্রকাশ হচ্ছে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি এইচএসসি, আলিম, এইচএসসি ভোকেশনাল, এইচএসসি ব্যবসা ব্যবস্থাপনা ও ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হবে।

সেদিন সকালে ২০২১ সালের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর দুপুরে শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইট এবং এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানা যাবে।

মহামারীর মধ্যে অনেক পিছিয়ে গত ২ ডিসেম্বর ২ হাজার ৬২১টি কেন্দ্রে উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। এতে ৯ হাজার ১৮৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৯০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

এর মধ্যে নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরীক্ষার্থী ছিল ১১ লাখ ৩৮ হাজার ১৭ জন। যাদের ২ লাখ ৫৪ হাজার ৮৩০ জন বিজ্ঞান, ৬ লাখ ৫৬ হাজার ১৩২ জন মানবিক ও ২ লাখ ২৭ হাজার ৫৫ জন বাণিজ্য বিভাগের।

এছাড়া ১ লাখ ১৩ হাজার ১৪৪ জন মাদ্রাসা এবং ১ লাখ ৪৮ হাজার ৫০৩ জন কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের।

এইচএসসি: প্রথম দিন অনুপস্থিত সাড়ে ১৫ হাজার পরীক্ষার্থী

বিশেষ পরিস্থিতিতে এবার সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে গ্রুপভিত্তিক তিনটি নৈর্বচনিক বিষয়ে ছয়টি পত্রে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সময় কমিয়ে আনা হয় দেড় ঘণ্টায়।

পরীক্ষা না নেওয়ায় বাংলা, ইংরেজির মত আবশ্যিক বিষয়গুলোর মূল্যায়ন করা হবে জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে।

করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০ সালের মার্চে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয় সরকার। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসায় ২০২০ সালে এইচএসসি পরীক্ষা নিতে পারে নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

পরে জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের গড় করে শিক্ষার্থীদের এইচএসসির মূল্যায়ন ফল প্রকাশ করা হয়।

তবে ২০২১ সালে পরীক্ষা ছাড়া এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের পরের ধাপে পাঠাতে চায়নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

সংক্রমণ কিছুটা কমে এলে গত ১২ সেপ্টেম্বর স্কুল-কলেজে সরাসরি ক্লাস শুরু হয়।

পরে নয় মাস পিছিয়ে গত ১৪ নভেম্বর শুরু হয় এসএসসি পরীক্ষা। গত ৩০ ডিসেম্বর প্রকাশ করা হয় মাধ্যমিকের ফল, যাতে রেকর্ড ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ