শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ছে আরও দুই সপ্তাহ

অনলাইন ডেস্কঃ
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আরও দুই সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

বুধবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার এখন ৩০ ভাগের কাছাকাছি। এ পরিস্থিতি বিবেচনা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ করে সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

“আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে শ্রেণিকক্ষে পাঠাদান যে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ আছে, সেই বন্ধ থাকার সময়সীমা আরও দুই সপ্তাহ বাড়ানো হবে।”

সবাই স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ মেনে চলার মাধ্যমে সংক্রমণের হার কমে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, “সংক্রমণ কমে আসার ফলে আমরা খুব শিগগিরই শিক্ষার্থীদের স্বাভাবিকভাবে শ্রেণীকক্ষে পাঠদানের দিকে নিয়ে যেতে পারব।”

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের প্রভাবে জানুয়ারির শুরু থেকে দেশে আবার সংক্রমণ দ্রুত বাড়তে শুরু করে।

ওই পরিস্থিতিতে গত ২১ জানুয়ারি দেশের সব স্কুল, কলেজ ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকেও একই ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়।
দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর ব্যাপক বিধিনিষেধের মধ্যে ২০২০ সালের মার্চে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছিল সরকার।

পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় দেড় বছর পর গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে আবার শ্রেণিকক্ষে ফিরতে শুরু করে শিক্ষার্থীরা।এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাও নেওয়া সম্ভব হয়।

এরইমধ্যে গত নভেম্বরে করোনাভাইরাসের অতি সংক্রামক ধরণ ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে নতুন করে উদ্বেগ বাড়তে থাকে। ১১ ডিসেম্বর বাংলাদেশেও ওমিক্রন আক্রান্ত রোগী ধরা পড়ে।

২১ জানুয়ারি ফের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণার পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছিলেন, শিশুদের মধ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সরকার এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ