টেকনাফে ‘গোলাগুলির’ পর ট্রলারে মিলল ১২ লাখ ইয়াবা

অনলাইন ডেস্কঃ
কক্সবাজারের টেকনাফ এলাকায় বঙ্গোপসাগরে ‘মাদক পাচারকারীদের সঙ্গে গোলাগুলির পর’ একটি ট্রলারসহ প্রায় ১২ লাখ ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারের খবর জানিয়েছে কোস্টগার্ড।

কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার নাঈম উল হক জানান, মঙ্গলবার দুপুরে সেন্টমার্টিন দ্বীপের ছেঁড়াদ্বীপ এলাকায় এই গোলাগুলি হয়।

তবে এ সময় কোস্টগার্ড সদস্যরা কাউকে আটক করতে পারেননি।

নাঈম উল হক বলেন, বিপুল পরিমাণ মাদকের চালান পাচারের খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের একটি দল দুপুরে অভিযান চালায়। এ সময় মাছ ধরার একটি সন্দেহজনক ট্রলার দেখতে পেয়ে তারা থামার নির্দেশ দেন।

“কিন্তু ট্রলারটিতে থেকে কোস্টগার্ড সদস্যদের লক্ষ করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়া হয়। আত্মরক্ষার্থে কোস্টগার্ড সদস্যরা পাল্টা গুলি ছোড়েন। একপর্যায়ে মাদক পাচারকারীরা ট্রলার থেকে সাগরে লাফ দিয়ে মিয়ানমারের জলসীমায় চলে যায়। পরে ট্রলার থেকে ১১ লাখ ৯৫ হাজার ৬০০ ইয়াবা, একটি চাইনিজ অটোমেটিক সাব মেশিন গান, ৩০ রাউন্ড গুলি ও দুটি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়। তাছাড়া মাদক পাচার কাজে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে।”

উদ্ধার করা সামগ্রী টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

সূত্রঃ বিডিনিউজ