রামুর জোয়ারিয়ানালা এইচ.এম.সাঁচি উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজারের রামু উপজেলার প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জোয়ারিয়ানালা এইচ.এম.সাঁচি উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির রেক্টর, সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন।

মঙ্গলবার (৭সেপ্টেম্বর) বেলা ২টায় তিনি বিদ্যালয়ে পৌঁছালে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, রামু উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এম আজিজুল হক সিকদার, পরিচালনা কমিটির সদস্য নুরুল হকসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা তাঁকে ফুলেল অভিনন্দন জানিয়ে বরণ করেন। এ সময় কক্সবাজার জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক এডভোকেট ইকবালুর রশিদ আমিন সোহেল, রামু উপজেলা প্রাথমিক সহকারি শিক্ষা অফিসার আবু নছর মোহাম্মদ হাচ্ছাব, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক জোয়ারিয়ানালা ঘোনারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ নজরুল ইসলাম, জোয়ারিয়ানালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে সচিব মোমিনুর রশিদ আমিন এইচ.এম.সাঁচি উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবন ও শহীদ মিনার স্থাপনের জায়গা পরিদর্শন করেন এবং বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকদের সাথে মতবিনিময় সভা করেন।

বিকালে কক্সবাজারের রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের কৃতি সন্তান, বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির রেক্টর (সচিব) মোমিনুর রশিদ আমিন শেখ হাসিনা জোয়ারিয়ানালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিগ্যান চাকমা, জোয়ারিয়ানালার চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন প্রিন্স, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবছার কামাল সিকদার, শেখ হাসিনা জোয়ারিয়ানালা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ হোছাইন সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ও শিক্ষক-শিক্ষিকা উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমির রেক্টর (সচিব) মোমিনুর রশিদ আমিনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান, রামুর সাংবাদিক খালেদ শহীদ (দৈনিক সমকাল), নীতিশ বড়ুয়া (দৈনিক পূর্বকোণ), সুনীল বড়ুয়া (মাছরাঙ্গা টেলিভিশন), আল মাহমুদ ভুট্টো (দৈনিক আজকের দেশবিদেশ), ওবাইদুল হক নোমান (দৈনিক হিমছড়ি) ও মো. নাছির উদ্দিন (দৈনিক সকালের সময়)।