থাইল্যান্ডে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে বিশাল বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভে নেমেছে হাজার হাজার মানুষ। ওচা পদত্যাগ না করা পর্যন্ত প্রতিদিনই রাস্তায় নামার অঙ্গীকার করেছে তারা।

ব্যাংককের কেন্দ্রস্থলে অশোক স্টেশনের বিক্ষোভ এবছর সংঘটিত সবচেয়ে বড় বিক্ষোভগুলোর অন্যতম। করোনাভাইরাসের কড়াকড়ির কারণে পুলিশ বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করার পরও বিপুল সংখ্যক মানুষ এই বিক্ষোভে নেমেছে।

প্রায়ুথ চান ওচার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ জোরদার হয়েছে গত জুন থেকে। গতবছর যারা প্রধানমন্ত্রী ওচার পদত্যাগ চেয়েছিল তারা আরও বেশি মানুষের সমর্থন নিয়ে এবার মাঠে নেমেছে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবননিতে ক্ষুব্ধ মানুষেরা ওচার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সামিল হয়েছে।

এ সপ্তাহের শুরুর দিক থেকে ওচা পার্লামেন্টে বিতর্ক এবং প্রশ্নের সম্মুখীন হওয়ার মধ্যেই তার বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ হচ্ছে। রাজনৈতিক বিরোধীরা প্রধানমন্ত্রী ও অন্য ৫ জন কেবিনেট মন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনা এবং করোনাভাইরাস পরিস্থিতি সামাল দিতে দক্ষতার অভাবের অভিযোগ করেছে।

তবে ওচা এবং তার মন্ত্রীরা সবাই এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এবং পার্লামেন্টে তাদের কাজের সাফাই গেয়েছেন। শনিবারে অনুষ্ঠেয় অনাস্থা ভোটে তারা জিতবেন বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ, পার্লামেন্টে ক্ষমতাসীন কোয়ালিশনের পরিষ্কার সংখ্যাগরিষ্ঠতা আছে। তবে বিক্ষোভকারীরা বলছে, তারা ওচার ওপর চাপ অব্যাহত রাখবে।

বিক্ষোভের প্রধান আয়োজকদের একজন বলেন, “পার্লামেন্টের সদস্যদেরকে মানুষজন এবং ওচার মধ্যে একজনকে বেছে নিতে হবে। যদি ওচা অনাস্থা ভোটে পাস করে প্রধানমন্ত্রী থেকে যান তাহলে আমরা তাকে তাড়ানোর চেষ্টা করে যাব।”

সূত্রঃ বিডিনিউজ