জীবন বীমা কর্মকর্তা মনজুর আলমের মৃত্যু, দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামুঃ
জীবন বীমা কর্পোরেশন কক্সবাজার জেলার সাবেক উন্নয়ন কর্মকর্তা মনজুর আলম ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। রবিবার (২৯ আগস্ট) রাত ১০টা ৪৫ মিনিটের সময় কক্সবাজার শহরের বাস টার্মিনাল এলাকার নাপ্পাঞ্জা পাড়াস্থ নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৬৫ বছর। তিনি দুই ছেলে, এক মেয়ে, দুই ভাই, দুই বোন ও আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান।

মরহুম মনজুর আলম কক্সবাজার পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড বাস টার্মিনাল এলাকার নাপ্পাঞ্জা পাড়ার মরহুম বদিউল আলম চৌধুরীর বড় ছেলে, মরহুম আবদুল কাইয়ুমের নাতি। তাঁর মৃত্যুর খবরে আত্মীয়-স্বজন ও সামাজিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে।

সোমবার (৩০ আগস্ট) সকাল ১১টা ১০মিনিটের সময় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল সংলগ্ন বড় কবরস্থান মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন, নাপ্পাঞ্জা পাড়া বায়তুন নূর জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা আবুল ফয়েজ আনসারি।

নামাজে জানাযা পূর্ব সংক্ষিপ্ত স্মরণ সভায় মরহুমের জন্য দোয়া প্রার্থনা করে বক্তৃতা করেন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা কক্সবাজার আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি মরহুমের ভায়রা এড. নুরুল ইসলাম, নাপ্পাঞ্জা পাড়া বায়তুন নূর জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ কারী মাওলানা আতাউল্লাহ, কক্সবাজার সদর উপজেলা জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ উল্লাহ, নাপ্পাঞ্জা পাড়া বায়তুন নূর জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি শওকত ওসমান, মরহুমের ছোট ভাই কক্সবাজার পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি শাহনেওয়াজ চৌধূরী ও মরহুমের বড় ছেলে নাজমুজ সাদাত সাজিন।

মরহুম মনজুর আলমের ছোট ভাই শাহনেওয়াজ চৌধূরী জানান, জীবন বীমা কর্পোরেশন সেলস্ অফিস- (৪৭) কক্সবাজার জেলার উন্নয়ন কর্মকর্তা-১ হিসেবে দীর্ঘ বছর কর্মরত ছিলেন মরহুম মনজর আলম। তিনি সামাজিক কর্মকান্ডে সর্বজন শ্রদ্ধেয় ছিলেন। দুই বছর আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। দীর্ঘ দুই বছর ধরে শারীরিক অসুস্থতায় দিনযাপন করছিলেন।

শাহনেয়াজ চৌধূরী জানান, ২০২০ সালে ২৭ মার্চ আমার পিতা বদিউল আলম, ২০০১ সালে আমার মা কুলসুম খাতুন ও ২০১১ সালের ১৪ জুন মেজ ভাই কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ আলম ইন্তেকাল করেন। গতকাল ২৯ আগস্ট আমার বড় ভাই মনজুর আলমকেও হারালাম।