বাংলাদেশ হারলে আমার বউ-বাচ্চারা সামনে আসে না : পাপন

ক্রীড়া ডেস্কঃ
নাজমুল হাসান পাপন কতটা ক্রিকেট অন্তঃপ্রাণ, সেটি প্রায় সবারই জানা। দলের ছোটখাটো বিষয়গুলোও অনেক সময় ঠিক করে দেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি।

একাদশ নির্বাচন, এমনকি টস জিতলে ব্যাটিং না বোলিং নেয়া উচিত-দলকে সেই পরামর্শ দিতেও কার্পণ্য করেন না পাপন। শুধু দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে নয়, ক্রিকেটটা তার ভীষণ আবেগেরও জায়গা-বিসিবি সভাপতি নিজেই জানালেন এমন কথা।

আবেগী সমর্থক হিসেবে বাংলাদেশ দলের হার তাই মোটেই সহ্য করতে পারেন না পাপন। টাইগাররা হারলে এমনই মেজাজ খারাপ থাকে তার, স্ত্রী-সন্তানদের ওপরও ক্ষোভ ঝেড়ে ফেলেন।

পাপন বলেন, ‘আমার একটা খারাপ দিক হলো বাংলাদেশ হারলে আমি মেনে নিতে পারি না। বাংলাদেশ হারলে অনেক মেজাজ খারাপ হয়। আমার বউ-বাচ্চারা কেউ আমার সামনে আসে না। এতটা খারাপ লাগে…। এটা আসলে অনেক বেশি সময় নিয়ে নিচ্ছে, যা নিয়ে আমার আগে ধারণা ছিল না।’

কিন্তু এই ক্রিকেটের সঙ্গে ভবিষ্যতেও থাকতে পারবেন কি না, সেই নিশ্চয়তা দিতে পারছেন না বিসিবি সভাপতি। কেননা তাকে এই খেলায় এত বেশি সময় দিতে নিষেধ করেছেন খোদ চিকিৎসক।

পাপন জানান, ‘ডাক্তারের পক্ষ থেকে আমাকে বারবার বলা হয়েছে, ক্রিকেট থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দূরে সরে যেতে। অন্তত বোর্ডে থাকলেও এই জিনিসগুলো যেন না করি। মাঝখানে এক বছর আমি এটার সাথে ছিলাম না, ভালোই ছিলাম। কিন্তু এখন আবার টের পাচ্ছি, অনেক সময় নিয়ে নিচ্ছে ক্রিকেট।’

সূত্রঃ জাগোনিউজ