নভেম্বরে এসএসসি, ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা আয়োজনের প্রস্তুতি

অনলাইন ডেস্কঃ
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আগামী নভেম্বরের শুরুতে এসএসসি এবং ডিসেম্বরে মাঝামাঝি এইচএসসি পরীক্ষা নেয়ার সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতির জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপর অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম চলছে। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দুটি পরীক্ষা নিতে পারবো।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মহিলা আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ও হুইল চেয়ার বিতরণ শেষে সাংবাদিকাদের এ কথা জানান তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে এলে নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে এসএসসি, ডিসেম্বরের মাঝামাঝি এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে। তবে পরিস্থিতি অনুকূলে না এলে গত বছর যেভাবে সাবজেক্ট ম্যাপিং করে ফলাফল দেয়া হয়েছে সেভাবে দেয়া হবে। আমরা এখনো পরীক্ষা নিয়েই ফল দিতে চাই।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের যাতে প্রস্তুতির কোনো ঘাটতি না হয়, সংক্ষিপ্ত সিলেবাস ওইভাবে জিজাইন করা হয়েছে। আশা করি, শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতিতে কোনো সমস্যা হবে না। একই সঙ্গে শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রম চলছে। এ কার্যক্রম আরও জোরদার করা হবে।

এদিকে সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সরকার চিন্তা-ভাবনা করছে বলে গতকাল (১১ আগস্ট) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জানিয়েছিলেন ডা. দীপু মনি।

তিনি বলেছেন, স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে কাজ করছে সরকার। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে ধাপে ধাপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে সরকার চিন্তাভাবনা করছে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত স্কুল-কলেজ খুলছে না।

মন্ত্রী বলেন, এখনই অটোপাসের চিন্তা নয়। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে নভেম্বর-ডিসেম্বরে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেয়া হবে।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। দফায় দফায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়িয়ে সবশেষ তা আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

সূত্রঃ জাগোনিউজ