‘সম্পূর্ণ শাটডাউন’ সক্রিয় বিবেচনায়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দেশে একটানা ১৪ দিনের ‘সম্পূর্ণ শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ সরকার সক্রিয়ভাবে বিবেচনায় নেবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বৃহস্পতিবার রাতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, “কোভিড ১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সুপারিশ সক্রিয় বিবেচনায় নেব। সংক্রমণ কমানোর জন্য পরিস্থিতি বিবেচনা করে যেটা প্রয়োজন সেটাই করা হবে।”

ভাইরাসের অতিবিস্তারের প্রেক্ষাপটে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দেশে একটানা ১৪ দিনের ‘সম্পূর্ণ শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ করেছে কোভিড ১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটি।

কমিটি এই সময়ে জরুরি সেবা ছাড়া যানবাহন, অফিস-আদালতসহ সবকিছু বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছে।

করোনাভাইরাস: ১৪ দিনের ‘সম্পূর্ণ শাটডাউনের’ পরামর্শ জাতীয় কমিটির

জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির বুধবার রাতে অনুষ্ঠিত ৩৮তম সভায় এই বিষয়ে সুপারিশ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে জাতীয় কমিটি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বিভিন্নভাবে তা কমানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। স্থানীয়ভাবে বিধিনিষেধ দিয়ে এটাকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি।”

সংক্রমণ পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “যে কোন সময় যে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

জাতীয় কমিটির সুপারিশ এমন এক সময়ে এসেছে যখন চলমান কঠোর বিধিনিষেধ এবং দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক ‘লকডাউনের’ মধ্যে আবার দৈনিক কোভিড সংক্রমণ ছয় হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির ধারায় দেশে একদিনে মৃত্যুর সংখ্যাও রয়েছে আশির উপরে।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ৬ হাজার ৫৮ জনের করোনাভাইরাস সংক্রমণ চিহ্নিত হয়েছে। এই রোগে মারা গেছেন ৮২ জন।

এদিন সকাল পর্যন্ত পাওয়া নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ লাখ ৭২ হাজার ৯৩৫ জনে। তাদের মধ্যে ১৩ হাজার ৮৬৮ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে এ ভাইরাস।

সূত্র: বিডিনিউজ