লামায় আরও গৃহহীনদের ১৭৫ স্বপ্নের ঠিকানা ঘর

মোঃ নাজমুল হুদা, লামাঃ
“আশ্রয়ণের অধিকার,শেখ হাসিনার উপহার” এ স্লােগানকে সমুন্নত রেখে সারা দেশে গৃহহীনদের ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন সরকার। প্রতিটি ঘরে দুটি শয়নকক্ষ, একটি করে বারান্দা, রান্নাঘর, গোসলখানা ও বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা। দেশে কেউ গৃহহীন থাকবে না প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষনা অনুযায়ী গৃহহীনদর দূর্যোগ সহনীয় ওই নতুন ঘর নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বান্দরবানের লামায় ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে দলিল ও গৃহ প্রদান কার্যক্রমের (২য় পর্যায়) শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। অসহায় ভূূমিহীন মানুষদেরকে এই প্রকল্পের আওতায় এনে জমি সহ একটি করে ঘর দেওয়া হবে। রবিবার (২০ জুন) সকালে উপজেলা পরিষদ মিলয়াতনে উপজেলা প্রশাসন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। সারা দেশে এক যোগে (২য় পর্যায়ে) ভিডিও কনফরেন্সের মাধ্যমে ৫৩,৩৪০টি গৃহহীন পরিবারের জন্য নির্মিত আশ্রয়ন প্রকল্পের শুভ উদ্ধোধন করেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। লামা উপজেলায় ১৭৫টি গৃহহীন পরিবারের মাঝে ঘরের দলিল প্রদান করা হয়।

আশ্রয়ন প্রকল্প উদ্ধোধন কালে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ রেজা রশিদের এর সভাপতিত্বে ঘর হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদ উদ্দিন, উপজেলা আ,লীগের সভাপতি ও গজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বাথোয়াইচিং মার্মা,উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোঃ মজনুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন, মোঃ জসিম উদ্দিন,জাকের হোসেন মজুমদার, ফরিদ উল আলম প্রমুখ।

এ সময় উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারবৃন্দসহ গৃহহীন পরিবারের লোকজন ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন পরিষদের সিএটু কামরুল হাসান পলাশ।

লামা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোঃ মজনুর রহমান বলেন, মুজিববর্ষের অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে । তারি ধারাবাহিকতায় ২য় পর্যায়ে লামায় ১৭৫টি পরিবারকে জমি সহ একটি করে ঘর করে দিচ্ছি। মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশে গৃহহীনদের তালিকা করে পর্যায়ক্রমে সবাইকে এই প্রকল্পের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন।