বিআরডিবি’র উপ-পরিচালক (অব:) খুনিয়াপালং এলাকার মো. আবদুল্লাহ চৌধুরীর ইন্তেকাল : শোক প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রামুঃ
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের উপ-পরিচালক (অব:) মো. আবদুল্লাহ চৌধুরী ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি রবিবার রাত ১টার সময়ে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৮৪ বছর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে, এক মেয়ে, আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। তাঁর মৃত্যুর খবরে আত্মীয়-স্বজন, সামাজিক অঙ্গন ও আবদুল আলী সিকদার বংশসহ এলাকার সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। গতকাল সোমবার (১৮ জানুয়ারি) বিকাল ৩টায় ‘ধেচুয়াপাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’ মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। নামাজে জানাযায় ইমাতি করেন, মরহুমের ভাগিনা মাওলানা আ হ ম নুরুল কবির হিলালী।

রামু-উখিয়ার প্রাচীন জনগোষ্ঠি আবদুল আলী সিকদারের বংশের একাদশ পুরুষ মো. আবদুল্লাহ চৌধুরী রামু উপজেলার পঞ্চাশ-ষাট দশকের খুনিয়াপালং ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ও চট্টগ্রাম জজ আদালতের জুরি মধ্যম ধেচুয়াপালং এলাকার মরহুম আবদুল হাকিম সিকদারের তৃতীয় ছেলে, খুনিয়াপালং ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম চৌধুরীর বড় ভাই। রামু-উখিয়ার প্রাচীন জনগোষ্ঠির সংগঠন ‘আবদুল আলী সিকদার বংশ সংহতি সংঘ’র উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ছিলে, ওই বংশের রুস্তম আলী সিকদার প্রজন্ম পুরুষ মো. আবদুল্লাহ চৌধুরী।

রামুর খুনিয়াপালং ইউনিয়নের প্রথম বিএসসি (অনার্স) এমএসসি ডিগ্রি অর্জনকারী মো. আবদুল্লাহ চৌধুরী একজন সদালাপী ও নিরহঙ্কারী মানুষ হিসেবে সর্বজন শ্রদ্ধেয় ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৫ সালে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে এমএসসি পাস করেন। এরপর তিনি কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে অফিসার পদে যোগদান করেন। ১৯৭৪ সালে প্রজেক্ট অফিসার হিসেবে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডে (বিআরডিবি) যোগদান করেন এবং ওই প্রতিষ্ঠানে উপ-পরিচালক পদে অধিষ্ঠ হন। ১৯৯৮ সালে ওই পদ থেকে তিনি অবসর গ্রহণ করেন।
মরহুমের নামাজে জানাযাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মরহুমের জন্য দোয়া কামনা করে বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল, মরহুমের ছোট ভাই খুনিয়াপালং ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম চৌধুরী, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, নেজাম ইসলাম কক্সবাজার জেলার নায়েব আমীর আ. হ. ম. নুরুল কবির হিলালী, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আবদুল হক, দক্ষিণ ধেচুয়াপালং জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আবু তাহের ও মরহুমের বড় ছেলে শফিকুল ইসলাম খোকন।

রামু-উখিয়ার প্রাচীন জনগোষ্ঠীর সংগঠন আবদুল আলী সিকদার বংশ সংহতি সংঘের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের উপ-পরিচালক (অব:) মো. আবদুল্লাহ চৌধুরী মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন, আবদুল আলী সিকদার বংশ সংহতি সংঘের উপদেষ্টা ও রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট আবুল মনসুর, সভাপতি নুরুল ইসলাম চৌধূরী, সহ-সভাপতি ও উখিয়া হলদিয়াপালং ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি মাহমুদুল হক সিকদার, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ খালেদ, অর্থ সম্পাদক ও খুনিয়া পালং ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহিম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাষ্টার জাফর আলম, যুগ্ম সম্পাদক ডা. এম এন আবদুল গফুর, ফতেখাঁরকুল’স্থ হায়দার আলী সিকদার প্রজন্ম কমিটি’র মাওলানা আ হ ম নুরুল কবির হিলালী, হোছন আলী সিকদার প্রজন্ম কমিটি’র আহ্বায়ক ফরিদুল আলম, হলদিয়া পালংস্থ শমশের আলী সিকদার প্রজন্ম কমিটি আহ্বায়ক মো. মোজম্মেল হক সিকদার, পূর্ব ধেচুয়াপালংস্থ জাফর আলী সিকদার প্রজন্ম কমিটি’র সদস্য সচিব মো. নাছির উদ্দিন সিকদার, পশ্চিম ধেচুয়াপালংস্থ রুস্তম আলী সিকদার প্রজন্ম কমিটি’র আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মো. ইসহাক শাহরীয়ার চৌধূরী নিক্সন, ফতেখাঁরকুলস্থ ফতেহ আলী মাতবর প্রজন্ম কমিটি’র আহ্বায়ক আবছার মিয়া প্রমুখ।